১১নং ওয়ার্ডে ভোটার হতে বাধা কাউন্সিলরের

সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:০৫ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০১৭ শুক্রবার



১১নং ওয়ার্ডে ভোটার হতে বাধা কাউন্সিলরের

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১১নং ওয়ার্ডের নতুন ভোটারদের ছবি তুলতে বাধা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে ১১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জমশের আলী ঝন্টুর বিরুদ্ধে।

২০ অক্টোবর শুক্রবার সকালে নারায়ণগঞ্জ শহরের কিল্লারপুল এলাকায় অবস্থিত বিবি মরিয়ম উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। নারায়ণগঞ্জের স্থায়ী বাসিন্দা নন এমন নতুন ভোটারদেরকে ছবি তুলতে বাধা দেয়া হয়। কাউন্সিলরের বাধায় অনেক নতুন ভোটার ছবি তুলতে না পেরে ফিরে গেছেন। ওইসময় বাধা দেয়ার কারণ জানতে গেলে অনেকের সঙ্গে অসদাচরণ করেন কাউন্সিলর ঝন্টু। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। তবে নির্বাচন কর্মকর্তা জানিয়েছেন বর্তমান ঠিকানায় থাকা যে কেউই ভোটার হতে পারবেন।

জানা গেছে, শুক্রবার নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১১নং ওয়ার্ডের নতুন ভোটারদের ছবি তোলার কাজ চলছিল শহরের কিল্লারপুল এলাকায় অবস্থিত বিবি মরিয়ম উচ্চ বিদ্যালয়ে। তবে সকাল থেকেই বিবি মরিয়ম উচ্চ বিদ্যালয়ে ছবি তোলার কক্ষের সামনে অবস্থান নেন কাউন্সিলর জমশের আলী ঝন্টু। নারায়ণগঞ্জের স্থায়ী বাসিন্দা নন এমন নতুন ভোটারদেরকে তিনি ছবি তুলতে বাধা দেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নারায়ণগঞ্জ শহরের কিল্লারপুল এলাকার ২৬ নং ইশাখা রোড পানি উন্নয়ন বোর্ডের ড্রেজার পরিদপ্তরের কলোনীতে বাবা মায়ের সঙ্গে থাকেন কলেজ ছাত্র শান্ত। তারা বাবা তাবলিগ হোসেন ড্রেজার পরিদপ্তরের ভোটার। তার মাও একই ঠিকানায় ভোটার। নতুন ভোটার হওয়ার স্বপ্ন নিয়েই কিল্লারপুল এলাকায় অবস্থিত বিবি মরিয়ম উচ্চ বিদ্যালয়ে শুক্রবার ছবি তুলতে এসেছিল শান্ত। তবে কাউন্সিলরের বাধার কারণে ছবি তুলতে পারেননি শান্ত। কারণ তার বর্তমান ঠিকানা ড্রেজার পরিদপ্তরের কলোনী হলেও স্থায়ী ঠিকানা অন্য জেলায়।

তল্লার রমজান মিয়ার স্ত্রী মীম। তার বাবা ও মা তল্লা এলাকার ভোটার। তবে তাদের স্থায়ী ঠিকানা শরিয়তপুর জেলায়। যে কারণে তাকেও বাধা পেয়ে ফিরে আসতে হয়েছে।

৯১ নং মোকরবা রোড নগর খানপুরের রঞ্জন ভৌমিকের স্ত্রী রূপা ভৌমিক। তার স্থায়ী ঠিকানা কুমিল্লা জেলায়। তাকেও ছবি তুলতে দেয়নি কাউন্সিলরের লোকজন।

শান্ত, মীম, রূপার মতো আরো অনেকেই শুক্রবার বাধা পেয়ে ভোটার হওয়ার ছবি তুলতে পারেননি।

এদিকে ছবি তুলতে বাধা দেয়ার কারণ জানতে চাইলে অনেকের সঙ্গেই অসদাচরণ করেন কাউন্সিলর জমশের আলী ঝন্টু। খবর পেয়ে বিগত সিটি নির্বাচনে অল্প ব্যবধানে পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থী অহিদুল ইসলাম ছক্কু বিবি মরিয়ম উচ্চ বিদ্যালয়ে গেলে তার সঙ্গেও খারাপ আচরণ ও গালমন্দ করেন ঝন্টু।

অহিদুল ইসলাম ছক্কু নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, অনেক নতুন ভোটার ছবি তুলতে না পেরে ফিরে যাচ্ছেন এমন খবর পেয়ে বিবি মরিয়ম উচ্চ বিদ্যালয়ে গেলে কাউন্সিলর সাহেব আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। তবে আমি শান্ত ছিলাম যাতে ভোটাররা নির্বিঘ্নে ছবি তুলতে পারেন। তবে নতুন ভোটার যাদের স্থায়ী ঠিকানা অন্য জেলায় তাদেরকে ছবি তুলতে বাধা দেয়া হয়েছে।

১১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জমশের আলী ঝন্টু নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, উপরের মহলের চাপে তিনি অন্য জেলার স্থায়ী বাসিন্দাদের ছবি তুলতে বাধা দিয়েছেন।

বিবি মরিয়ম উচ্চ বিদ্যালয়ে ছবি তোলার দায়িত্বে থাকা কৃষ্ণ চন্দ্র দেবনাথ নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, কেউ তার এলাকার বাসিন্দা কিনা সেটা শনাক্ত করার বিষয়টি নির্ভর করে স্থানীয় কাউন্সিলরের উপরে। বাধা দেয়ার কারণ সম্পর্কে কাউন্সিলরই ভাল বলতে পারবেন।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, বর্তমান ঠিকানায় যে কেউই ভোটার হতে বাধা নেই। এ বিষয়ে কারো বাধাঁ দেয়ার এখতিয়ার নেই। বিবি মরিয়ম স্কুলে কেউ ছবি তুলতে বাধা দিয়েছে এমন অভিযোগ আমি পাইনি। তবে কেউ যদি ছবি তুলতে না পারেন তাহলে আগামী ৩১ অক্টোবর সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসে অর্থাৎ আমার কার্যালয়ে ছবি তুলতে পারবেন।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

এই বিভাগের আরও