১০ ফাল্গুন ১৪২৪, শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ , ৩:০১ পূর্বাহ্ণ

primer_vocational_sm

নারায়ণগঞ্জের খেয়া ঘাটগুলোতে টোল আদায়ে চলছে স্বেচ্ছাচারিতা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:৩৫ পিএম, ২১ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার | আপডেট: ০৩:৩৫ পিএম, ২১ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার


ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী তীরে খেয়াঘাটগুলোতে ইচ্ছেমত টোল আদায় করা হচ্ছে। হাতেগোনা কয়েকটি খেয়াঘাট ব্যতিত প্রায় সবগুলো ঘাটে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা। আর যাত্রীরা খেয়াঘাটের টোল কর্মকর্তাদের কাছে জিম্মি হয়ে বাড়তি টোল দিয়ে নদী পারপার হচ্ছে।

সম্প্রতি শহরের বিভিন্ন খেয়াঘাটের যাত্রীদের সাথে কথা বলে নানা তথ্য সহ অভিযোগ পাওয়া যায়।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ শহরের সেন্ট্রল ঘাট ও নবীগঞ্জ ঘাট টোল ফ্রি হলেও টানবাজার খেয়া ঘাট থেকে শুরু করে ফায়ারঘাট, কেরোসিনঘাট, বটতলা ঘাট, খালঘাট, মাছুয়াবাজার ঘাটগুলোতে টোল আদায়ে স্বেচ্ছাচারিতা দেখা দিয়েছে। এসব ঘাটের অধিকাংশ ২টাকা করে টোল আদায় করে থাকে। তবে মালামাল পারাপারের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি স্বেচ্ছাচারিতা দেখা যায়। মালামালের জন্য ইচ্ছেমত টোল আদায় করা হয়ে থাকে।

নাম না প্রকাশের শর্তে এক যাত্রী জানান, নিতাইগঞ্জ এলকায় কাজ করার কারণে এসব ঘাট দিয়ে যাতায়াত করতে হয় । তবে এসব ঘাটে জন প্রতি ২ টাকা করে টোল রাখা হয়। যেখানে সেন্ট্রাল ঘাটে ও নবীগঞ্জ ঘাটে টোলই রাখা হয়না। সেখানে তারা হয়তো ১ টাকা করে টোল রাখতে পারে কিন্তু এসব ঘাটে ২ টাকা মানে বেশি হারেই টোল রাখা হচ্ছে। তবে মালামাল আনা নেওয়া করতে গেলে তো মাথায় বাজ পড়ে। কারণ মালামাল আনা নেওয়া করতে গেলে তারা ইচ্ছেমত টোল আদায় করে। এ নিয়ে কিছু বলতে গেলে তারা খারাপ আচরণ করে। যাত্রীরা অনেকটা জিম্মি হয়ে বাড়তি টোল দিয়ে থাকে।’

রফিক নামের এক যাত্রী জানান, ‘এই সবঘাটগুলো মূল শহরের চেয়ে একটু ভেতরের দিকে অবস্থান করাতে টোল কর্মকর্তাদের স্বেচ্ছচারিতা দেখার কেউ নেই। তারাও এই সুযোগে ইচ্ছেমত বাড়তি টাকা আদায় করে যাচ্ছে। অন্যদিকে তাদের ক্ষমতার দাপটে যাত্রীরা এই অত্যাচার নিরবে মুখ বুঝে সহ্য করে যাচ্ছে।’

মাছুয়া বাজার ঘাটের টোল কর্মকর্তদের সাথে কথা হলে এক কর্মকর্তা জানান, ‘সবঘাটেই তো ২ টাকা করে টোল আদায় করা হয়। সেন্ট্রাল ঘাটেও তো ২টাকা করে টোল আদায় করা হচ্ছে। এসময় সেন্ট্রাল ঘাটে কোন টোল আদায় করা হয়না বলে জানালেও সেই কর্মকর্তা মানতে নারাজ। এরপর তিনি এ বিষয়টি এড়িয়ে যান।

নারায়ণগঞ্জ শহরের ঘাটগুলো একটা নিময় নীতিকে আসা উচিত বলে মনে করছেনা যাত্রীরা। এতে করে টোল আদায়ের তারতম্য বজায় থাকবে বলেও তারা মনে করছেন। তাছাড়া সবার দিক বিবেচনা করে যাতে টোলের হার আগামীতে নির্ধারণ করা হয় তার জোর দাবি জানিয়েছেন যাত্রীরা। এছাড়া কেউ যেন প্রভাবশালী মহলের ক্ষমতার দাপটে শাসন-শোষণ করতে না পারে তার দিকে নজর দেয়ার আহবান জানান।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

ফিচার -এর সর্বশেষ