১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, সোমবার ২৮ মে ২০১৮ , ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ

আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা, আইনগত ব্যবস্থা নিব : আইভী


স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৫:৪৮ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ বুধবার | আপডেট: ০৯:৪৭ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ বুধবার


আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা, আইনগত ব্যবস্থা নিব : আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী তার উপর হামলার ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন।

বুধবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে একথা জানান তিনি।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমাকে হত্যার জন্যই এ হামলা। এই হামলায় আমার বোন জামাই, ভাই, কর্মীরা হামলার শিকার হয়েছে। আমি মার খেতে প্রস্তুত ছিলাম কিন্তু কর্মীরা মার খাবে আমি কখনোই চাইনি। আমার ধারণা ছিল আমি ওখানে বসা থাকলে এ হামলা হবেনা কিন্তু তা হয়েছে। আমার কর্মীদের টার্গেট করে মারা হয়েছে।

আইভী বলেন, নারায়ণগঞ্জের দুটি পরিবারকে আলাদাভাবে দেখার কারন নেই। দলের মধ্যে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকবেই। এটা দেশের সকল জেলায় সকল দলেরই আছে। আমাকে ৪ আসনের এমপি বলতে পারতেন হকার্স মার্কেটটি ১০ তলা করা হোক, আমি সাহায্য করবো। তিনি আমাকে তা বলেননি।

তিনি বলেন, আমি রাস্তা দিয়ে হেঁটে গেলে হাজার হাজার মানুষ আসে। তো কাউকে ডেকে আনিনি, আমি তো অস্ত্র নিয়ে মিছিলে যাইনি। আমার ফুটপাত দিয়ে আমি হেঁটে সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন সম্পর্কে জানাতে চেয়েছিলাম।

আগের দিন ঘোষণা দিয়ে, আদেশ করে উস্কে দিয়ে হামলা করিয়েছেন শামীম ওসমান। সেলিম ওসমান আমাকে চিঠি দিয়েছেন, আমি সেলিম ওসমানের প্রশ্নের উত্তর দিয়েছি, চিঠি দিয়েছি। যেখানে প্রশাসন বসে সিদ্ধান্ত নিচ্ছি, সেখানে কেন এমন হামলা প্রশ্ন করেন আইভী।

মেয়র বলেন, রাস্তা আমার আর আমি হাঁটতে পারবোনা তা তো হতে পারেনা। আমরা প্রায়ই উচ্ছেদ করি আর ২৫ তারিখ থেকে পুলিশ প্রশাসন উচ্ছেদ করছে এটা ভালো করেছে, মানুষের জন্য কাজ করেছে। একমাস আগেও আমার গাড়ির ৬ নাট একসাথে খুলে যায়। আমাকে হত্যা চেষ্টা নতুন না কিন্তু মৃত্যুর ভয় আমি পাইনা।

তিনি বলেন, আমি একটি হকার মার্কেট করে দিয়েছি। এখন দড় থেকে দুইহাজার হকার নারায়ণগঞ্জে বসে। শহরের বিভিন্ন অলিগলিতে বসে। তবে আমরা চাচ্ছিলাম বঙ্গবন্ধু সড়কটা ফাঁকা থাকবে। এক সড়কের শহরের তাই বিভিন্ন সময় যানজট লেগে থাকে। তাই চাচ্ছিলাম বঙ্গবন্ধু সড়ক যাতে ফাঁকা থাকে।

যেখানে তিনটা প্রশাসন এবং এমপি সাহেবের সঙ্গে কথা বলে কাজ করছিলাম সেখানে আরেকজন চার আসনের এমপি এসে এভাবে অনুরোধ নয় আদেশ দিয়ে বসাতেই হবে এবং ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, আওয়ামীলীগকে এভাবে অর্ডার করে।

তিনি বলেন, আমি আইনগত ব্যবস্থা নিবো। কারণ প্রায় ১ থেকে দেড়’শ লোক আহত হয়েছে এবং আমি নিজেও পায়ে আঘাত পেয়েছি। আমার এতোগুলো লোকজনকে অঝোরে বৃষ্টির মতো ঢিল দিলো মারলো। আপনারা দেখেছেন আমাকে কিভাবে হত্যা করতে চাইলো। আমি তো নিরস্ত্র ছিলাম আমার লোকজন তো সব নিরস্ত্র ছিল। আমি কারো সঙ্গে মারামারি বা ঝগড়া ঝাটি করতে যাই নাই। আমাদের উদ্দেশ্য ছিল আমরা ফুটপাত দিয়ে হাটবো। সকলকে বলবো ফুটপাতে মানুষ হাটবে আর হকার্সরা হকার মার্কেটে যাবে। এবং আমরা সেটা করতে করতেই ফুটপাত দিয়ে হেঁটে গিয়েছি এবং প্রেসক্লাবে প্রেস ব্রিফিং করে চলে আসবো। আমি কখনো কারো সঙ্গে লাগতে যাইনি। এটা দলের হোক আর দলের বাইরেই হোক। আমার কাজ সিটি করপোরেশনের নিয়ে সারাদিন চিন্তা ভাবনা করা এবং উন্নয়ন নিয়ে কাজ করা ও জনগনের সুবিধা দেওয়া। এ শহরের মানুষ ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে পারছে না এটা আমার জন্য বদনাম। তারা আমাকে ভোট দিয়েছে তারা এ শহর দিয়ে হাঁটতে চায়। এটাও ঠিক যে হকাররা মানবিক কারণে তারা আসে। আমরা একবার তাদের পুর্নবাসন করেছে কিন্তু এখন ঢাকা উচ্ছেদ করে দিয়েছে এ হকার যদি নারায়ণগঞ্জে এসে বসে তা কি আমাদের বসাতে হবে বার বার। আমারও তো জায়গা লাগবে সে তুলনায় জায়গা কোথায়। রাজউকের যে জায়গার উপর আমি মার্কেট করেছি সেই জায়গাও রাজউক বিক্রি করে দিতে চায়। আমি মামলা করে তা থামিয়ে রেখেছি। এখন ৪ আসনের সাংসদ আমাকের বলতে পারতেন এখানে যে হকার মার্কেটটা আছে এটা ১০ তলা করা হোক। আমি মেয়র আইভী সাহায্য করবো। এ প্রস্তাবটা আসতে পারতো। কিন্তু কোন এমপির কাছ থেকে এ প্রস্তাব আসলো না।

আইভী আরো বলেন, একটা জায়গায় থাকলে ঝামেলা হবেই। ঝামেলা থাকলে দমে যাবো কেন। মানুষের জন্য কাজ করতে এসেছি কখনো আক্রমনের শিকার হতে হবে কখনো ভালো থাকবে এজন্য আমি চলে যাবো? মানুষ আমাকে ভোট দিয়েছে না। জনস্বার্থ ও মানবিক দিকও দেখতে হবে। হঠাৎ হঠাৎ কেউ অতি মানবিক হয়ে যায়। আমি একটা চেয়ারে বসে আছি কিন্তু আমি অতো মানবিক হতে পারি না। আমাকে মানবতাও দেখতে হয় আবার আমার জনগনের চলার জন্য দেখতে হয়।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ