আবারও ফুটপাতে বসছে হকাররা

সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৬ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ বৃহস্পতিবার



ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

হকার ইস্যুতে সংঘর্ষের ঘটনায় মাস পেরুতে না পেরুতেই আবারও বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাতে বসতে শুরু করেছে হকাররা। তবে এবার তারা কৌশলে পরিবর্তন এনেছে। এছাড়াও বেশ কিছু হকার এখনও বঙ্গবন্ধু সড়কের পাশে অলিগলিতেই স্থায়ী ভাবে বসতে শুরু করেছেন। এদিকে পুলিশেরও ধারাবাহিক টহল ও উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে বঙ্গবন্ধু সড়কে পুলিশের টহল আগের তুলনায় অনেক কম দেখা যাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন নগরবাসী।

২২ ফেব্রুয়ারি সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জ শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের উভয় পাশে বিচ্ছিন্ন ভাবে হকার বসতে দেখা গেছে। চাষাঢ়া গোলচত্ত্বর থেকে শুরু করে নিতাইগঞ্জ পর্যন্ত রাস্তার উভয় পাশেই রয়েছেন হকাররা। কেউ বাশের ঝুড়িতে, কেউ বা প্লাস্টিক চটে, আবার কেউ কেউ ভ্যানগাড়িতে করেই পণ্য বিক্রি করছেন। তবে তারা সকালের তুলনায় বিকাল থেকে বাড়তে শুরু করে। আর ধীরে ধীরে আবার বঙ্গবন্ধু সড়ক হকারদের দখলে চলে যাবে বলেও ধারণা করছেন সাধারণ পথচারীরা।

সাধারণ পথচারী আব্দুল হুমায়ন কবির বলেন, ‘সংঘর্ষের পর থেকে বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাত ছিল একে বারে হকার মুক্ত। যেকারণে আমরা সাধারণ মানুষ নির্বিঘেœ চলাচল করতে পেরেছি। কারণ চাষাঢ়া থেকে ২নং রেল গেট রিকশায় যেতে যানজট থাকলে ৫ থেকে ১০ মিনিট লেগে যায়। কিন্তু হেটে গেলেও একই সময় লাগে। আর তাই হেটে গেলে স্বাস্থের জন্য যেমন ভালো তেমন টাকাও খরচ কম হয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘সম্প্রতি আবারও হকার বসতে শুরু করেছে। এখনই যদি এ ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ না নেয়া হয় তাহলে সেই পুরোনো চিত্রে ফিরে যাবে। এতে হকারের ফের সুযোগ পেয়ে যাবে। আর বিগত কয়েকদিন ধরে ফুটপাতে পুলিশের তেমন টহল দেখা যাচ্ছে না।এতে করে শহরে হকাদের দৌরাতœ বেড়ে চলেছে।’

জানা গেছে গত ১৬ জানুয়ারি ফুটপাতে হকার বসাকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী সমর্থকদের সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান সমর্থক ও হকারদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ সহ গুলি বর্ষণ করা হয়। এতে মেয়র আইভী সহ উভয় পক্ষের অর্ধশতাধিক আহত হয়। এ ঘটনার পর থেকেই বঙ্গবন্ধু সড়কের উভয় পাশে হকারদের বসার ব্যাপারটি নিষেধ করে দেয়া হয়।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও