৫ কার্তিক ১৪২৫, রবিবার ২১ অক্টোবর ২০১৮ , ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ

UMo

ধলেশ্বরী নদীর ১০ হাজার বর্গফুট ভরাট করে অবৈধ ডকইয়ার্ড : জরিমানা,


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৪৫ পিএম, ২২ মে ২০১৮ মঙ্গলবার


ধলেশ্বরী নদীর ১০ হাজার বর্গফুট ভরাট করে অবৈধ ডকইয়ার্ড : জরিমানা,

জলাশয় আইনকে ভঙ্গ করে ধলেশ্বরী নদীর নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠপট্টি খেয়াঘাট সংলগ্ন এলাকায় নদীর পূর্ব তীরে ড্রেজার দিয়ে বালু ফেলে ভরাটকৃত প্রায় ১০ হাজার বর্গফুট এলাকায় অবৈধভাবে দু’টি ডকইয়ার্ড গড়ে তুলেছিল আলী আহাম্মদ বেপারী নামের এক ব্যক্তি।

২২ মে মঙ্গলবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত ওই অবৈধ ডকইয়ার্ড দু’টি উচ্ছেদ এবং নদীর ভরাটকৃত অংশ অবমুক্তের মাধ্যমে নদীকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে অভিযান চালিয়েছিল বিআইডব্লিউটি নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দর। এসময় দু’টি ডকইয়ার্ডের মালিক আলী আহাম্মদ বেপারীকে ১ লাখ টাকা জরিমানা এবং ২ মাসের মধ্যে ভরাটকৃত অংশ সরিয়ে নদীকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে সময় বেঁধে দেয়া হয়। এর আগে মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুর এলাকায় মাসুম গং এর ভরাটকৃত অংশ ভেকু দিয়ে অবমুক্ত করা হয়।

বিআইডব্লিউটিএ`র নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট শামীম বানু শান্তির নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দরের যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী, উপ পরিচালক  মোঃ শহীদুল্লাহ, সহকারী পরিচালক পারভেজ, শাহআলম, রেজাউল করিম, সদর মডেল থানার পরিদর্শক আইসিপি সাজ্জাদ, নৌ পুলিশের পরিদর্শক শাহনেওয়াজ প্রমুখ। অভিযানকালে একটি জাহাজ, একটি এক্সাভেটর, একটি টাগবোট, বিপুল সংখ্যক পুলিশ, আনসার ও উচ্ছেদকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট শামীম বানু শান্তি জানান, ধলেশ্বরী নদীর তীর দখল করে ডকইয়ার্ড গড়ে তোলা ওই জমির মালিক দাবিদার আলী আহাম্মদ বেপারী জানিয়েছেন তিনি ওই জমির মালিক। এর আগে নদী ভাঙ্গনের কারনে তাদের জমি বিলীন হয়ে গিয়েছিল। তাই তারা ভরাট করে সেখানে ডকইয়ার্ড গড়ে তুলেছেন। সদর এসিল্যান্ড থেকে তাদেরকে জমির সীমানা চিহ্নিত করে দেয়া হয়েছে। তবে প্রাকৃতিক জলাধার আইন ২০০০ অনুযায়ী যে কোন ব্যক্তি বা সংস্থা নদী-নালা, খাল-বিল, পুকুর, দীঘিসহ যেকোন জলাশয়ের আকৃতি বা শ্রেণী পরিবর্তন করতে পারবেন না। কোন ব্যক্তি যদি জমির মালিকও হন কিন্তু তিনি জলাশয়ের আকৃতি বা শ্রেণী পরিবর্তন করতে পারবেন না। তাই নদী ভরাট করায় জলাধার আইন ২০০০ অনুযায়ী ওই ব্যক্তিকে ১ লাখ টাকা জরিমানা ছাড়াও তাকে ভরাটকৃত অংশ সরিয়ে নিয়ে নদীকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে ২ মাসের সময় বেঁধে দিয়েছি। ওই জমির মালিক দাবিদার আলী আহাম্মদ বেপারী এ বিষয়ে একটি মুচলেকা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ সড়কের পার্শ্ববর্তী নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠপট্টি খেয়াঘাট সংলগ্ন এলাকায় গত কয়েক মাস পূর্বে বাশের আড়গাড়া স্থাপন করে রাতের আধাঁরে ড্রেজার লাগিয়ে বালু ফেলে ধলেশ্বরীর পূর্ব তীরের অন্তত ১০ হাজার বর্গফুট এলাকা ভরাট করে ফেলে স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজন। এর আগে ১৪ মার্চ বিআইডব্লিউটিএ’র একটি টিম অভিযানে গেলে বাঁধা দেয় দখলদাররা। এসময় তাদের নিয়োজিত সন্ত্রাসীরা অস্ত্র সহকারে মহড়াও দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে বাধা প্রদানকারীরা সরে যায়।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ