৩ আশ্বিন ১৪২৫, মঙ্গলবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , ১০:২৫ অপরাহ্ণ

জমে উঠছে শহরের মার্কেটগুলো


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৪৬ পিএম, ২৪ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার


জমে উঠছে শহরের মার্কেটগুলো

পবিত্র ঈদ উল ফিতরকে সামনে রেখে রমজানের শুরু থেকেই জমতে শুরু করেছে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মার্কেটগুলো। প্রতিটি মার্কেটেই ঈদকে টার্গেট করে নতুন নতুন জামা কাপড় ও মালামাল সাজিয়েছে দোকানিরা।

২৪ মে শহরের মার্কেটগুলোও ঘুরে এমন দৃশ্যই দেখা গেছে। শহরের চাষাঢ়ায় সমবায় মার্কেট, শান্তনা মার্কেট, ফ্রেন্ডস মার্কেট, ডিআইটি মার্কেটসহ বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দিনব্যাপী জমজমাট মার্কেট দেখা গেছে। প্রতিটি দোকানেই দেখা গেছে নতুন নতুন জামা কাপড় ও সামগ্রী সাজিয়া রাখতে। অনেক দোকানে ক্রেতা আকৃষ্ট করতে দিয়েছেন মূল্যছাড়সহ নানা অফার।

নামী ব্রান্ড রিচম্যান, টপটেন, আড়ং, লারিভ, কান্ট্রিবয়, বিশ্বরঙ, ম্যানস ওয়ার্ড, শু ওয়ার্ড, ক্রিসেন্ট, বিগ বাজার, লুবনান, এস্টেসী সহ বিভিন্ন দোকানে দেখা গেছে ঈদ উপলক্ষে নতুন নতুন প্রোডাক্ট সাজিয়ে রাখতে। শুধু কাপড়ের দোকানই নয় ওর্নামেন্টস, মেকাপসহ প্রসাধনী সামগ্রীর দোকানগুলোতেও দেখা গেছে ভীড়।

রমজানের শুরু থেকেই জমতে থাকা মার্কেটে ক্রেতাদের এমন উপস্থিতি ব্যবসায়ীদের উৎসাহ যোগাচ্ছে বলে জানিয়েছেন দোকানিরা। ক্রেতাদের উপস্থিতিতে ব্যবসায়ীরা খুশি এবং ঈদ উপলক্ষে মানুষও নিজেদের পছন্দের কাপড়ও সামগ্রী আগেভাগেই কিনতে পেরে তারাও খুশিই হচ্ছেন।

তবে ক্রেতাদের পাশাপাশি অনেকেই এখন দেখছেন মার্কেট ঘুরে ঘুরে। তারা মার্কেট যাচাই করে কিছুদিন পরে কিনবেন বলে জানিয়েছেন। মানুষের উপস্থিতিতে জমে উঠেছে হকার মার্কেটসহ ফুটপাতের দোকানগুলোও। এসব দোকানেও রয়েছে ক্রেতাদের বাড়তি চাপ।

ক্রেতা ফারজানা জানান, তিনি বন্ধের দিনে স্বামীকে ছুটিতে কাছে পেয়েছেন বলে তাকে নিয়ে কেনাকাটার ঝামেলা শেষ করে ফেলতে চলে এসেছেন। মার্কেটে ঘুরে শুক্রবার ও শনিবারই তিনি কেনাকাটার সিংহভাগ শেষ করতে চান। মার্কেটে মানুষের উপস্থিতিও ভালো বলে জানান তিনি।

বিক্রেতা ওলিউল্লাহ জানান, কেনাকাটা চলছে তবে এখনো পুরোদমে শুরু হয়নি। তবে তিনি প্রত্যাশা করছেন ১০রোজার পর থেকেই একেবারে পুরোদমে বেচাকেনা শুরু হয়ে যাবে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ