২৮ কার্তিক ১৪২৫, মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮ , ২:৫৮ পূর্বাহ্ণ

UMo

খুলেছে তবে জমেনি


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:০৪ পিএম, ২১ জুন ২০১৮ বৃহস্পতিবার


খুলেছে তবে জমেনি

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ছুটি শেষে সরকারি বেসরকারি অফিস, আদালত, ব্যাংক সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান খুললেও ছুটির আমেজ শেষ হয়। এখনও শহরের প্রধান সড়ক ফাঁকা রয়েছে। সকাল গড়ি দুপুর আর দুপুর গড়ি রাত হলেও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এখনও খুলেনি। ব্যবসায়ী লেনদেন একেবারে কম থাকায় এখনও জমে উঠেনি শহর। তবে ব্যবসায়ীরা বলছেন ঐচ্ছিক ছুটি কাটিয়ে ২৩ জুন শনিবার থেকে আবারও জমজমাট হয়ে উঠবে শহর।

২১ জুন বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনের শহরের কয়েকটি বেসরকারি ব্যাংকে গিয়ে দেখা গেছে সেগুলো খুললেও তেমন কোন ভীড় ছিল না। ছিলনা টাকা জমা বা উত্তোলনের তেমন কোন মানুষ। ব্যাংক কর্মকর্তা বন্ধের কাজ চালিয়ে গেলেও গ্রাহক না থাকায় ছুটির আমেজেই দিন শেষ করেছেন।

এদিকে ব্যাংকগুলো খুললেও টানবাজার, নয়ামাটি, উকিলপাড়া, চাষাঢ়া, নিতাইগঞ্জ পাইকারীবাজার, ডালপট্টি সহ বেশ কিছু এলাকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছিল বন্ধ। তবে সে তুলনায় শহরের দিগুবাবু বাজারেও ক্রেতা বিক্রেতা দুইজনকেই দেখা গেছে। অনেকেই ছুটি শেষে গ্রাম থেকে ফিরে সপ্তাহের বাজার করছেন।

অন্যদিকে নগরীর অন্যতম ব্যস্ত বঙ্গবন্ধু সড়কও ছিল যানজট মুক্ত। চাষাঢ়া মোড় থেকে দুই নং রেল গেট, মণ্ডলপাড়া ব্রীজ, নিতাইগঞ্জ পর্যন্ত রাস্তা ছিল অনেকটাই ফাঁকা। তবে বাস টার্মিনাল যাত্রীদের কিছুটা আনাগোনা দেখা যায়। কারণ অনেকেই ঈদের ছুটি শেষে শহরের ফিরছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যাংক কর্মকর্তা বলেন, ব্যবসায়ীদের লেনদেন হলে ব্যাংকের লেনদেনও বাড়বে। তাছাড়া ব্যাংক ফাঁকা থাকবে। আগামী শনিবার থেকেই টানবাজার এলাকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলতে শুরু করবে। আর তখন থেকেই আবার ব্যাংকের কাজও বাড়বে। এখন তিনদিনের বন্ধের সময় যেসব কাজ বাকি ছিল সবাই সেগুলোই শেষ করছে। তাছাড়া নতুন দুইএকজন গ্রাহক আছেন তাদের সঙ্গে কথা বলছেন।

টানবাজার এলাকার ব্যবসায়ী সাজন সাহা বলেন, শনিবার থেকে টানবাজার এলাকার সকল ব্যবসায়ীরা দোকান খুলবেন। তখন থেকেই আবার মানুষের ভীড় হবে।

উকিলপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী সুমন সেন বলেন, ‘বছরে এ ঈদের হোসিয়ারী মার্কেটের ব্যবসায়ী ও কারখানার শ্রমিকেরা বেশি ছুটি নেয়। যার ফলে হোসিয়ারী মার্কেটের কাজ শুরু হতে হতে আগামী সপ্তাহ চলে যাবে। কারণ ব্যবসায়ীরা দোকান খুললেও শ্রমিক না থাকলে কাজ হবে না।

আইনজীবী শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘ঈদের বন্ধ শেষে দুইদিন ধরে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তবে এখনও সবাই ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করে। আদালতের কার্যক্রম চললেও তবে ভীড় নেই। আগামী সপ্তাহ থেকেই ভীড় বাড়বে।’

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ