২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮ , ৮:৪৪ অপরাহ্ণ

rabbhaban

স্বর্ণপট্টিতে এখনো ঝুলছে কালো পতাকা


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৩৬ পিএম, ১১ জুলাই ২০১৮ বুধবার


স্বর্ণপট্টিতে এখনো ঝুলছে কালো পতাকা

সহকর্মীকে হারিয়ে শোকে কাতর হয়ে পড়েছেন স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। প্রত্যেক দোকানের সামনেই এখনও ঝুলছে কালো পতাকা। কোনভাবেই যেন মানিয়ে নিতে পারছেন নিজেদেরকে। গত ১৮ জুন থেকে নিখোঁজ ছিলেন তাদেরই সহকর্মী স্বর্ণ ব্যবসায়ী প্রবীর ঘোষ। দীর্ঘ ২১ দিন ধরে নিখোঁজ থাকার পর গত ৯ জুলাই রাত ১১টায় শহরের আমলপাড়া এলাকার একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংক থেকে স্বর্ণ ব্যবসায়ী প্রবীর ঘোষের ৬ টুকরো লাশ উদ্ধার করা হয়।

লাশ উদ্ধার হওয়ার পর থেকেই বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলেন স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। বন্ধ ছিল তাদের ব্যবসা বাণিজ্য। বিশেষ করে প্রবীর ঘোষের খুনের ঘটনায় তারই ঘনিষ্ট বন্ধু পিন্টু দেবনাথের জড়িত থাকার খবরে একেবারেই হতবাক হয়ে যান তারা।

ব্যবসায়ীদের মতে, এটা কিভাবে সম্ভব? যার সাথে দহরম-মহরম সম্পর্ক ছিলো। আর সেই কিনা হত্যাকান্ডের জড়িত। যা কল্পনাও করা যায় না। এত বড় বিশ্বাষঘাতক মানুষ কিভাবে হয়। তাহলে মানুষ মানুষকে কিভাবে বিশ্বাস করবে।

১১ জুলাই বুধবার দুপুরে স্বর্ণপট্টিতে গিয়ে দেখা যায়, স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা দোকানপাট খুললেও দোকানের সামনে এখনও ঝুলানো রয়েছে কালো পতাকা। কিছু কিছু দোকানে ক্রেতারা আসতে শুরু করলেও ব্যবসায়ীরা তাদের সহকর্মীর শোক কাটিয়ে উঠতে পারেন নি। প্রায় প্রত্যেক দোকানেই ঘটনার ভয়াবহ নির্মমতা নিয়ে আলাপ-আলোচনা চলছিল। যদিও প্রবীর ঘোষ নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই নিয়মিত ছিল না তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম।

এর আগে প্রবীর ঘোষ হত্যায় জড়িত সন্দেহ তার বন্ধু পিন্টু দেবনাথ ও তারই দোকানের কর্মচারী বাপেন ভৌমিক বাবুকে আটক করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে প্রবীরের লাশের সন্ধান পাওয়া যায়।

প্রসঙ্গত নিখোঁজের ২১ দিন পর সোমবার ৯ জুলাই রাত ১১টায় শহরের আমলপাড়া এলাকার ঠান্ডু মিয়ার ৪ তলা ভবনের নিচে সেপটিক ট্যাংক থেকে প্রবীরের লাশ উদ্ধার করা হয়। তাকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। টুকরো টুকরো করে লাশ ফেলে দেওয়া হয় ভবনের সেপটিক ট্যাংকে। পঁচন ধরে যায় লাশের মধ্যে। প্রবীরকে হত্যা করা হয়েছে মাথ, পা, হাত ও শরীরকে বিচ্ছিন্ন করে। হত্যার পর অংশগুলো সিমেন্টের ব্যাগে ভরে ফেলে দেওয়া হয়।

প্রবীর ঘোষ কালীরবাজার ভোলানাথ জুয়েলার্সের মালিক। গত ১৮ জুন থেকে সে নিখোঁজ ছিল। তাঁর সন্ধান দাবীতে ২১ দিন ধরে বিভিন্ন সময়ে ব্যবসায়ী, নিহতের স্বজন, বিভিন্ন সংগঠন ও পরিবারের লোকজন মানববন্ধন ও সমাবেশ করে আসছিল। এর মধ্যে নিহতের পরিবার প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপিও প্রদান করেছিল।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ