৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার ২২ নভেম্বর ২০১৮ , ৫:৩৪ অপরাহ্ণ

rabbhaban

শুভ্র হত্যার প্রধান আসামীর মৃত্যু,কষ্টেও সুষ্ঠু বিচারের প্রত্যাশা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:০৪ পিএম, ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রবিবার


ক্যাপশন : বায়ে নিহত শুভ্র। ডানে গ্রেফতারের পর চারজন।

ক্যাপশন : বায়ে নিহত শুভ্র। ডানে গ্রেফতারের পর চারজন।

সরকারী তোলারাম কলেজের একাউন্টিং বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্র ও সাংবাদিক শাহরিয়াজ মাহমুদ শুভ্র হত্যাকান্ডের ১ বছর পেরিয়ে গেলেও আলোর মুখ দেখেনি হত্যার বিচারকাজ। শুভ্র হত্যার ৮ মাস পরে চার্জশিট প্রদান করা হলেও বিচারকার্য শুরু হয়নি এখনো। এনিয়ে শুভ্রর পরিবার হতাশা প্রকাশ করলেও ন্যায়বিচার পাবেন বলে আশা রাখছেন তারা।

ইতোমধ্যে মামলার ৪ আসামীর মধ্যে প্রধান আসামী আলামিন কারাগারেই মৃত্যুবরণ করেছেন। তবে এটি নিছক ছিনতাই নাকি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড তা নিয়ে এখনো সন্দেহ প্রকাশ করছেন শুভ্রর বাবা। দেশের বিচারহীনতার সংস্কৃতি ভেঙে সাংবাদিক হত্যাকান্ডের বিচার নতুন করে বিচার ব্যবস্থার উপর মানুষের আস্থা ফিরিয়ে আনবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

উলে¬খ্য, ২০১৭ সালের ৮ সেপ্টেম্বর বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন সাংবাদিক শাহরিয়াজ শুভ্র। ২ দিন পর ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের পাশে ভূইগড় কাজীপাড়া এলাকার ডোবা থেকে উদ্ধার করা হয় শুভ্রের অর্ধগলিত লাশ। সহকর্মী ও পরিবারের লোকজন তার পড়নের জামা কাপড় দেখে পরিচয় শনাক্ত করতে সক্ষম হয়।

এর প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ সহ বিভিন্ন কর্মসুচী পালন করে শাহরিয়াজ শুভ্রের সহপাঠীরা। এছাড়া ছাত্র ফেডারেশন বিভিন্ন সময় শুভ্র হত্যার বিচারের দাবিতে আন্দোলন করে আসছিল। এ ঘটনায় ফতুল¬া থানায় হত্যা মামলা দায়েরের ৩৬ ঘণ্টার ভেতরেই ৪ ছিনতাইকারীকে মোবাইল ট্রেস করে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

শুভ্রের বাবা মাদরাসা শিক্ষক কামাল সিদ্দিকি নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘‘আমার বড় ছেলে শাহরিয়াজ নিজে চাকরি করে নিজের লেখাপড়ার খরচ চালাতো। মেধাবী ছেলেটাকে সামান্য একটি মোবাইল আর কিছু টাকার জন্য হাত পা বেঁধে মেরে ফেলতে পারে তা এখনো বিশ্বাস হয় না। আমি জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে অনুরোধ করেছিলাম এটি নিছক ছিনতাই নাকি পরিকল্পিত হত্যা তা খতিয়ে দেখতে। আমাকে পুলিশ প্রশাসন, ডিবি আশ্বাস দিয়েছিলো সুষ্ঠু বিচার হবে, আমি আজও সেই আশা বুকে নিয়ে আছি। শুভ্র হত্যার ১ বছর পেরিয়ে গেলেও মূল বিচার কার্য এখনো শুরু না হওয়ায় কিছুটা কষ্ট তো অবশ্যই থেকে যায়।’

মামলার ব্যাপারে পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এসএম ওয়াজেদ আলী খোকন বলেন, সাংবাদিক শুভ্র হত্যার মামলাটি আমাদের নজরে রয়েছে। মামলাটির চার্জশীট প্রদান করা হয়েছে। মামলাটি চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে জেলা জজ আদালতে বদলি হলেই মামলার বিচার কার্যক্রম শুরু হবে। চার্জশীট দেখে যদি বাদিপক্ষ অনাপত্তি দাখিল করে তবে ২ থেকে ৩ মাসের ভেতরেই মামলাটি বদলী হয়ে আসবে। আশাকরি ২০১৮ সালের মধ্যেই মূল বিচারকাজ শুরু হবে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ