গ্রেনেড হামলার রায় : নারায়ণগঞ্জ শহরে হাতবোমা বিস্ফোরণ ভাঙচুর

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০১:৩৯ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৮ বুধবার



গ্রেনেড হামলার রায় : নারায়ণগঞ্জ শহরে হাতবোমা বিস্ফোরণ ভাঙচুর

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়ের পরে নারায়ণগঞ্জ শহরের বিভিন্ন স্থানে হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটেছে। তবে ওই সময়ে পুলিশ কাউকে আটক বা শনাক্ত করতে পারেনি। এছাড়া ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ভূইগড়ে একটি যানবাহন ভাঙচুর করা হয়। শহরের বিভিন্ন স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ ও র‌্যাবের টহল। আছে সাজোয়া যানও।

১০ অক্টোবর বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে গলাচিপার সামনে কয়েক দফা হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটে। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রাজ্জাক জানান, কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এগুলো সাধারণ পটকা বা হাতবোমা টাইপের।

দুপুর ১টায় লিংক রোডের ফতুল্লা ভূইগড় এলাকায় পুলিশ ধাওয়া করলে বিক্ষাভকারীরা বোমা বিস্ফোরন ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (আইসিপি) গোলাম মোস্তফা জানান, একদল বিএনপি নেতাকর্মী লিংক রোডের ভূইগড় এলাকায় শ্লোগান দিয়ে একটি সিএনজি ও একটি ব্যাটারী চালিত ইজিবাইক ভাংচুর করে। এসময় পুলিশ তাদের ধাওয়া করলে কয়েকটি হাত বোমা বিস্ফোরন ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এছাড়া ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ডেও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সাত্তার জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে আমরা যাবার আগেই নেতাকর্মীরা পটকা ফুটিয়ে পালিয়ে যায়।

এর আগে বর্বরোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় জড়িত থাকার দায়ে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও বিএনপি নেতা আবদুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান (বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান) তারেক রহমানসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেওয়া আরও ১১ আসামিকে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও