২৯ কার্তিক ১৪২৫, মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮ , ১:৩৯ অপরাহ্ণ

UMo

চাঁদাবাজদের কাছে জিম্মি বন্দর পারাপারের যাত্রীরা!


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ১০:২৫ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০১৮ রবিবার


চাঁদাবাজদের কাছে জিম্মি বন্দর পারাপারের যাত্রীরা!

নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদী পারাপারের অন্যতম খেয়াঘাট আলোচিত ১নং সেন্ট্রাল খেয়াঘাটের যাত্রীদের পারাপারের ফ্রি ট্রলার করে দিয়েছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমান যা সাধুবাদ কুড়িয়েছিল সাধারণ মানুষের মধ্যে। তবে একটি চাঁদাবাজ গ্রুপ যাত্রীদের পারাপারে দূর্ভোগ সৃষ্টির মাধ্যমে এমপি সেলিম ওসমানের সুনাম ও সকল সফলতা বিনষ্ট করতে পায়তারা শুরু করে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে সে কোন সময় যাত্রীদের সঙ্গে চাঁদাবাজদের সংর্ঘষ বাধঁতে পারে গুঞ্জন রয়েছে। এ বিষয়ে এমপি সেলিম ওসমানের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন যাত্রীরা।

জানা গেছে, শীতলক্ষ্যা নদীর ১নং সেন্ট্রাল খেয়াঘাটের বন্দর পাড়ে বিআইডব্লিউটিএ ও নাসিকের করে দেয়া যাত্রী ছাউনী ও আশেপাশে সড়কগুলো এখন চাঁদাবাজদের দখলে। প্রতিনিয়ত হকার ও মাছ বাজার বসিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে এই চাঁদাবাজ চক্রটি। স্থানীয় বন্দর থানা ছাত্রলীগের এক বিতর্কিত নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে তার অনুগামীরা হকারগুলোর কাছ থেকে অগ্রীম ১০ থেকে ২০ হাজার টাকা ও প্রতিদিন ১০০ টাকা ভাড়া আদায় করে একটি চক্র। ওই চাঁদাবাজ চক্রের কাছ থেকে এমপি সেলিম ওসমানের ঘনিষ্টজনদেরও কয়েকজন মাসোহারা পেয়ে থাকেন বলে গুঞ্জন রয়েছে। এর আগে একাধিকবার এমপি সেলিম ওসমান ও বিআইডব্লিউটিএ উচ্ছেদ চালিয়ে গেলেও আবার ২/৩ দিন পর পুনরায় চালু করে এই ছাত্রলীগ নেতার বাহিনী।

বাজারের জন্য জায়গা দেয়া হলেও, সকাল-সন্ধ্যা-রাতে বিতর্কিত ছাত্রলীগ নেতা বাহিনীর মাদকসেবীরা প্রকাশ্যে যাত্রী পারাপারের জেটিতে সড়ক বন্ধ করে মাছ বিক্রি করে যাচ্ছে। জেটির দু’টি পাশে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় দোকান নির্মাণ করে দোকান ভাড়া দেয়া হয়েছে। ফলে যাত্রীরা পারাপারে সময় যাত্রীরা ক্রয়ে জন্য দাড়িয়ে গেলে, পিছনে মহিলা শিশু ও পুরুষ যাত্রীরা দুর্ভোগের শিকার হয়। অনেক সময় উভয় পক্ষ ঝগড়া বা সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

চাঁদাবাজদের কাছে টাকা নিয়ে দোকান বসিয়ে এক হকার হুংকার করে বলেন, এককালীন টাকা নিয়ে দোকানে বসাইছি। টাকা উঠাতে হইবো না, আপনারা কি করবেন করেনগা।

জানা গেছে, ৩নং মাছ ঘাট থেকে দুপুরে আগে পরে যে মাছ থাকে তা কম দামে ক্রয় করে যাত্রী ছাউনীতে ফ্রিজিং করে মাদকসেবী মাছ ব্যবসায়ীরা। সন্ধ্যায় গার্মেন্টস শ্রমিকরা ছুটি পর বাসা ফেরা সময় তাদের ফ্রিজিং মাছ, মুরগী চামড়া-গিলা-কলিজা-পা ও মাংস, ডাল, পিঠা, বিস্কুট বিক্রি করে যাচ্ছে। যা পুরো জিনিসগুলো অপুষ্টি ও অস্বাস্থ্যকর, ফলে ক্রেতাদের ভবিষ্যত শংকিত সাধারণ মানুষ।

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ