‘আমি মইরা প্রমাণ দিলাম ওরে কতটা লাভ করি, আই লাভ ইউ রাতুল’

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:৩৮ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০১৮ বৃহস্পতিবার

‘আমি মইরা প্রমাণ দিলাম ওরে কতটা লাভ করি, আই লাভ ইউ রাতুল’

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের কদমতলী এলাকায় বৃহস্পতিবার ২৫ অক্টোবর দুপুরে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে নিজের পরনের ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে মরিয়ম (১৬) নামের স্কুল ছাত্রী। আত্মহত্যার পূর্বে চিরকুটে আত্মহত্যার কারণ উল্লেখ করে গেছে ওই স্কুল ছাত্রী।

মৃত মরিয়ম বরগুনা জেলার কদমতলী থানাধীন সোনাখালী এলাকার মৃত মাসুদের মেয়ে। সে সিদ্ধিরগঞ্জের কদমতলী নয়াপাড়া এলাকার কাঞ্চন মিয়ার দোতলা বাড়ির নিচতলায় মায়ের সঙ্গে ভাড়া থাকতো। মরিয়ম আদমজী এমডব্লিউ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী ছিল।

মৃতের মা মাহিনূর সাংবাদিকদের জানায়, তার মেয়েকে স্কুলে যাবার পথে কিছু বখাটে ছেলে উত্তক্ত করতো। এছাড়া মরিয়মকে রাতুল নামের একটি ছেলে ভালবাসতো। রাতুলও বেশ কিছুদিন পূর্বে মরিয়মের জন্য বিষ খেয়েছিল। কিন্তু সে প্রাঁণে বেচে গেছে। আমাদের ধারনা রাতুলের জন্যই সে আত্মহত্যা করেছে।

এদিকে আত্মহত্যার পূর্বে চিরকুটে মরিয়ম লিখেছে, “মা আমার মাফ কইরা দিস। ভাইয়া তুই ভালো থাকিস আমি আর তোরে জীবনেও ভাইয়া বইলা ডাকুম না। মারিয়া আমারে মাফ কইরা দিস। আসলে আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। আমি একজনকে ভালবাসি সে রাতুল। আমি ওরে ছাড়া বাঁচতে পারলাম না। অনেক কষ্ট হইতেছিল, তাই আমি মইরা যাইয়া প্রমাণ দিলাম যে আমি ওরে কতটা লাভ করি। আই লাভ ইউ রাতুল। ওই দুনিয়াতে জাহান্নামবাসী হইলাম তোর সুখের জন্য।”

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নজরুল ইসলাম জানান, আত্মহননকারী স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও