চাষাঢ়ায় পুলিশ সুপারের অ্যাকশনের পর ফের পূর্বের অবস্থা

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:৫৫ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার

চাষাঢ়ায় পুলিশ সুপারের অ্যাকশনের পর ফের পূর্বের অবস্থা

বৃহস্পতিবার ১০ জানুয়ারী দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের পূর্বে নিজেই চাষাঢ়া শহীদ মিনারে অবস্থানরত স্কুল কলেজের নির্দিষ্ট পোশাক পরিহিত শিক্ষার্থীদের মিনার থেকে বের করে দেন পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ। এছাড়া ভাষা সৈনিক সড়কে অবস্থিত বেইলি টাওয়ারের সামনে অবৈধ পার্কিং করা সিএনজি, প্রাইভেট কার, রিকশা সরানোর আদেশ দেন এবং সরতে বাধ্য করেন। কিন্তু পুলিশ সুপারের অভিযানের পরে আবারো আগের মতই ফুটপাত দখল হয়ে যায়। সেই সঙ্গে আবারো পার্কিং হতে থাকে যানবাহনও।

দুপুর সাড়ে ১২টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ প্রশাসনের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলন করেন নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ। মাদক, ভূমিদস্যু, জুট সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, বাল্যবিবাহ সংক্রান্তে উক্ত সংবাদ সম্মেলন হয়।

সংবাদ সম্মেলনের পূর্বে শহীদ মিনার পরিষ্কার করা হয়। শহীদ মিনারে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে পুলিশ সুপার নিজ উদ্যোগেই বিভিন্ন স্কুল কলেজের নির্দিষ্ট পোশাক পরিহিত শিক্ষার্থীদের বের করে দেন এবং ভাষা সৈনিক সড়কের অবৈধ পার্কিং পরিস্কার করেন। তবে সংবাদ সম্মেলন শেষে তিনি বেরিয়ে যাওয়ার পর পরই সেখানে ধীরে ধীরে আবারো প্রাইভেটকার, সিএনজি পার্কিং করতে দেখা যায়।

সিএনজি চালকেরা বলছেন যে তাদের সিএনজির জন্য এখানে কোনো স্থায়ী সিএনজি স্ট্যান্ড না থাকায় ভাষা সৈনিক সড়কে তারা সিএনজি দাঁড় করায়।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন সিএনজি ড্রাইভার নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘আমাদের তো গাড়ি রাখার আর কোনো নির্দিষ্ট জায়গা নেই। আমরা শুরু থেকে এখানেই গাড়ি রাখি। কিছুক্ষনের জন্য আরেক জায়গায় গাড়ি রাখছিলাম। আমাদের মাঝে মধ্যেই উঠিয়ে দেয় তার পর আবার বসতেও দেয়।’

তোলারাম কলেজের ছাত্র সাহাদাত নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘অন্যান্য সময় ক্লাস টাইমেও ছেলে মেয়েরা বসে থাকে মিনারে। তখন মিনারের পুলিশরা কিছু বলেনা, আর আজকে আমদের ছুটির পর আসছি তাও বের করে দিয়েছে।’

এভাবে গাড়ি সরালে কোনো আশানুরূপ ফলাফল নগরবাসী পাবে না বলে মনে করেন নগরবাসী। কারণ এর আগেও এমন চিত্র দেখা গেছে।

আয়েশা রহমান নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘আমরা এমন অনেক সময়ই দেখেছি যে পুলিশ আর সিটি কর্পোরেশন এই রাস্তা থেকে অবৈধ পার্কিং তুলে দিয়েছে। তার পরেও তো স্থায়ী ফলাফল দেখছি না। এই যেমন দেখছেন যে পুলিশ সুপার সব ক্লিয়ার করলো তার পরেও আবারো গাড়িগুলো পার্ক করা হচ্ছে।’


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও