প্রশাসনের কঠোরতার পরেও চাষাঢ়ায় দিনভর ভয়াবহ যানজট

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪৪ পিএম, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার

প্রশাসনের কঠোরতার পরেও চাষাঢ়ায় দিনভর ভয়াবহ যানজট

নারায়ণগঞ্জ শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে দফায় দফায় পালন করা হয়েছে ট্রাফিক সপ্তাহ সহ নানান সচেতনতামূলক কার্যক্রম। সরিয়ে দেওয়া হয়েছে শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাঢ়া মোড়ের সকল অবৈধ স্ট্যান্ড ও ফুটপাতে থাকা হকার। কিন্তু প্রশাসনের নানা কার্যক্রমের পরেও পুরোপুরি সফলতা আসেনি। নারায়ণগঞ্জ শহরের যানজট যেন কোনো ভাবেই কমছে না। দিন দিন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে এই যানজট। ফলে ভোগান্তি কমছে না নগরবাসীর।

নারায়ণগঞ্জ শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে প্রশাসনের সব থেকে প্রশংসনীয় উদ্যোগ হচ্ছে অবৈধ স্ট্যান্ড উচ্ছেদ করা। এছাড়া প্রায় প্রতিদিন জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চালানো হচ্ছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। কিন্তু সপ্তাহের শেষ দিনে সকাল থেবেই ভয়াবহ যানজটের কবলে পড়তে দেখা গেছে পুরো নগরবাসীকে।

বৃহস্পতিবার ৭ ফেব্রুয়ারি সরেজমিনে দেখা যায় এমন ভয়াবহ অবস্থা। শহরের বঙ্গবন্ধু সড়ক, লিংক রোড,  প্রধান সড়কের সবগুলোতেই ভয়াবহ যানজট। দশ মিনিটের পথ পাড়ি দিতে সময় লাগছে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট। পায়ে হাঁটার গতির থেকেও ধীর গতিতে চলাচল করছে যানবাহন। প্রতিবার ৫-১০ মিনিট আটকে থাকতে হচ্ছে এক জায়গায়। ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রী সাধারণকে।

ভোগান্তি প্রসঙ্গে কাউসার আহমেদ নামে এক যাত্রী নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, গেল কয়েকদিন ভালো ভাবেই চলাচল করা গেছে। বৃহস্পতিবার হঠাৎ করেই দেখি ভয়াবহ যানজট। বাস স্ট্যান্ড থেকে বাসে উঠছি প্রায় পৌনে এক ঘন্টা হয়েছে অথচ মাত্র চাষাঢ়া আসলাম। কিন্তু বুঝতে পারছি না কিসের জন্য এত যানজট।

হঠাৎ নগরীতে এত যানজট কেন এই প্রসঙ্গেও কিছু বলতে পারেননি কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ। তবে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক একজন জানান, যানজটের কয়েকটা কারণ আছে। ড্রাইভাররা আমাদের সিগন্যাল মানতে চায় না। একদিক থেকে গাড়ি আসছে দেখার পরেও অপর পাশ থেকে আরেকজন গাড়ি ঢুকিয়ে দেয়। যে কারণে গাড়ির গতি কমে যায় আর যানজট তৈরী হয়। তাছাড়া সপ্তাহের শেষ দিন আজকে। বৃহস্পতিবার গাড়ির চাপ একটু বেশি থাকে। যানজট এই কারণেও হতে পারে।

তবে এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য জেলা ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক (টিআই) মোঃ শরফুদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও