কিছু মানুষ খোঁচাখুচি করে, ভুল বোঝাবুঝির অবসান : এসপি হারুন

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৪:২৯ পিএম, ৯ এপ্রিল ২০১৯ মঙ্গলবার

কিছু মানুষ খোঁচাখুচি করে, ভুল বোঝাবুঝির অবসান : এসপি হারুন

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বলেছেন, ‘গণমাধ্যমেই খবর এসেছে যে দুইজন ব্যবসায়ীকে আমরা পুলিশ ধরে মামলা দিয়েছি। অথচ এ ধরনের কোন ঘটনাই ঘটে নাই। এ ঘটনার কারণেই ব্যবসায়ীরা আসবেন বলা হয়েছিল। কিন্তু এমপি সাহেব (সেলিম ওসমান) নিজেই বলেছেন কোন মামলাও হয়নি। এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। এটা একটা ভুল বোঝাবুঝি ছিল। সমাজে কিছু মানুষ আছে যাদের ধাক্কাধাক্কি খোঁচাখুচি করা হয়।

তিনি বলেন, ‘আমি চ্যালেঞ্জ নিয়ে বলতে পারি। নারায়ণগঞ্জের কোন এমপির সঙ্গে আমার কোন বিরোধ নাই। তাদের সঙ্গে কোন বিষয় নিয়ে আমার দ্বিমত নাই।

পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বলেন, ‘আমরা আমাদের কাজ করছি। আপনাদের সাথে তো আমাদের কোন বিভেদ ঝগড়া নাই। আমরা আমাদের মত কাজ করে নারায়ণগঞ্জকে শান্তির সুন্দর করতে চাই। আমরা জুয়ার আসর, মদের আসর, তেল চোরদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছি। অনেক সময় আমরা মিস গাইড হতে পারি। আমাদেরকে ভুল তথ্য প্রদান করতে পারে। আমরা যখন বুঝতে পারি তখন সাথে সাথে চেষ্টা করি। এরপরও যদি ভুলক্রমে কেউ আটকে যায় তাহলে কোর্ট থেকে তাকে জামিন করিয়ে আনবেন। কিন্তু আমাদের দোষারোপ করার কোন কারণ নাই।’

৯ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে লাঙ্গলবন্দ স্নান উৎসব নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রতিক ইস্যু নিয়ে বক্তব্য দিতে গিয়ে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমান বলছেন, জনস্বার্থে আমরা কাজ করবো। আমরা ভুল করলে আমাদের শাস্তি হবে। জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার ভুল করলে তাদের সঙ্গে আমাদের ঝগড়া হবে হয়তো শাস্তি হবে। আমরা চিরজীবনের জন্য আসি নাই। আজকে যারা আছেন তারা এক সময়ে চলে যাবেন। তখন ভালো কাজ করলে আমরা সংবর্ধনা দিব।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ প্রসঙ্গে সেলিম ওসমান বলেন, ‘আমরা কেউ চিরজীবনের জন্য আসি নাই। জেলা প্রশাসনে যারা আছেন তারা অন্য জেলার ভালোর জন্য, নারায়ণগঞ্জে ভালো করেছে তাদের হয়তো অন্য কোথাও নিয়ে যাবে। নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জে এমন পরিস্থিতি হয়েছিল যে নির্বাচনকে নিয়ন্ত্রন করার জন্য ওনার মতো এসপি না আসলে নির্বাচনে গণ্ডগোল হতে পারে। তারজন্য ওনাকে জরুরী ভাবে এখানে আনা হয়েছিল। এমনও হতে পারে অন্য জেলায় ওনার মতো স্ট্রং এসপির প্রয়োজন আছে তাহলে বদলী হতেই পারে। তখন আমরা সবাই মিলে হয়তো বা সেদিন তাকে সংবর্ধনা দিবো।’

তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘সাংবাদিক ভাইয়েরা খোঁচাখুচি কইরেন না। শান্তির শহর গড়ে তুলুন। আমাদের সঙ্গে কথা বলেন। কথা না বলে নিউজ কইরেন না। নারায়ণগঞ্জের অনেক অনলাইন মিডিয়া মিথ্যাচার করছে। এগুলো উদ্বেগের বিষয়। সাংবাদিকদের কাছে অনুরোধ যতক্ষন পর্যন্ত কিছু না ঘটে ততক্ষন পর্যন্ত ঘটিয়ে দিয়েন না। যত গর্জে তত বর্ষে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কারো ভুল বোঝাবুঝি হতে পারে। আমরা নারায়ণগঞ্জে উন্নয়ন চাই। বার বার এসব ভুল বোঝাবুঝি আমাদের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করছে। আমাদের কাজ জনসেবা করা। সেটা করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। আর এটা করতে গেলে পুলিশ প্রশাসনকে লাগবে। তাদের সঙ্গে তো আমাদের কোন বিভেদ নাই। তারা তাদের কাজ করবে। আমরা আমাদের কাজ করবো।’

আরো উপস্থিত ছিলেন স্নান উদযাপন পরিষদের সভাপতি সরোজ কুমার সাহা, এফবিসিসিআই এর পরিচালক প্রবীর কুমার সাহা, লাঙ্গলবন্দ স্নান উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুজিত সাহা, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি পরিতোষ কান্তি সাহা, স্নান উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি বাসুদেব চক্রবর্তী, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিপন সরকার প্রমুখ।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও