আল জয়নালের জামিন, আরেকটি চাঁদাবাজীর অভিযোগ

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪৫ পিএম, ১২ মে ২০১৯ রবিবার

ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

দুইটি মামলায় টানা ১৮ দিন কারাভোগের পর অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন বিতর্কিত জাপা নেতা আল জয়নাল। রবিবার (১২ মে) জেলা ও দায়রা জজ আনিসুর রহমানের আদালতে আসামীপক্ষের আইনজীবীরা আল জয়নালের জামিন আবেদন করলে আদালত জামিন মঞ্জুর করেন। ফলে জেল থেকে মুক্তি পেতে আর কোন বাধা নেই তার।

এদিকে আল জয়নালের বিরুদ্ধে ফের ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (১১ মে) ফতুল্লা মডেল থানায় আবির নূর এরিক নামে ভুক্তভোগী ওই অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে জয়নাল সহ আরও ৩ আসামীর নাম উল্লেখ করা হয়।

এর আগে পর পর দুটি চাঁদাবাজির মামলায় কারাভোগ করেন আল জয়নাল। দুইটি মামলাতেই রিমান্ড আবেদন করা হলে আদালত রিমান্ড বাতিল করেন। রিমান্ড বাতিলের বিরুদ্ধে বাদী পক্ষের আইনজীবীরা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে রিভিশন দাখিল করলে সেটিও খারিজ করে দেয় আদালত।

গত ২৩ এপ্রিল কালীরবাজারে ২২ লাখ টাকা চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতার করা হয় আল জয়নালকে। কালীরবাজার স্বর্ণ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি রহমতউল্লাহ ফারুক বাদী হয়ে সদর থানায় ওই মামলার দায়ের করেন। মামলার নামীয় অন্যান্য আসামীরা হলেন হাফিজুর রহমান লিংকন (৩৯), মির্জা মনির (৩), শীতল পাল (৩২)।

কারাগারে থাকা অবস্থাতেই ৩০ এপ্রিল আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়। প্রায় ২৫ লাখ টাকা চাঁদাবাজির মামলায় আসামী করা হয় আল জয়নাল সহ ৩ জনকে। নারায়ণগঞ্জের টানবাজারে এস এম মালেহ রোডের বাসিন্দা আহমেদ জুবায়ের বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। একই সাথে মামলায় ৮ থেকে ১০ জন অজ্ঞাত রয়েছে।

ফতুল্লা থানায় অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, গত ১০ এপ্রিল ভুক্তভোগীর ফতুল্লার ভাড়া দেয়া বাড়ীতে আল জয়নাল ও সঙ্গীয় ব্যক্তিরা প্রবেশ করে মালিককে খুঁজতে থাকে। বাড়ির মালিক এখানে না থাকায় বাড়ির কেয়ারটেকারের মাধ্যমে ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে মালিকের নিকট। এঘটনায় চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে পরদিন নামীয় আসামীরা সহ অজ্ঞাত ১০ থেকে ১২ জন প্রবেশ করে কেয়ারটেকার কুলসুমকে পিস্তলের বাট দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে।

এসময় আল জয়নালের নির্দেশে ঘরের টিন, চালা, বেড়া, ও গোডাউনের ঝুট সহ প্রায় ৫ লাখ টাকার সম্পত্তি লুট করে নিয়ে যায় আসামীরা। এছাড়া বাড়ির দক্ষিণ পাশের দেয়াল ও স্থাপনা ভাঙচুর করে আরো ৫ লাখ টাকার সম্পত্তি বিনষ্ট করে। বাড়ির ভাড়াটিয়ারা বাঁধা দিতে এলে তাদেরকেও মারধর করে আসামীরা। পরবর্তীতে দাবীকৃত চাঁদা না দিলে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায় আসামীরা।

এ ঘটনায় ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে তদন্তের দায়িত্ব প্রদান করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ২৩ এপ্রিল কালীরবাজারে ২২ লাখ টাকা চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতার করা হয় আল জয়নালকে। কালীরবাজার স্বর্ণ ব্যাবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি রহমতউল্লাহ ফারুক বাদী হয়ে সদর থানায় ওই মামলার দায়ের করেন। মামলার নামীয় অন্যান্য আসামীরা হলেন হাফিজুর রহমান লিংকন (৩৯), মির্জা মনির (৩), শীতল পাল (৩২)।

কারাগারে থাকা অবস্থাতেই ৩০ এপ্রিল আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়। প্রায় ২৫ লাখ টাকা চাঁদাবাজির মামলায় আসামী করা হয় আল জয়নাল সহ ৩ জন কে। নারায়ণগঞ্জের টানবাজারে এস এম মালেহ রোডের বাসিন্দা আহমেদ জুবায়ের বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। একই সাথে মামলায় ৮ থেকে ১০ জন অজ্ঞাত রয়েছে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও