স্যালুট পুলিশ সুপার, কিন্তু রাস্তা বন্ধ কেন!

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:১৫ পিএম, ১৬ মে ২০১৯ বৃহস্পতিবার

স্যালুট পুলিশ সুপার, কিন্তু রাস্তা বন্ধ কেন!

‘১৬ মে বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা ২৫ মিনিট। শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে চাষাঢ়ামুখী সড়কের যান চলাচল তখন বন্ধ। সেই জটে আটকা পড়েন আহমেদ হোসাইন নামের একজন ব্যক্তি। রিকশায় চড়ে তিনি দুই নং রেল গেট থেকে চাষাঢ়ায় উঠলে বন্ধ ছিল তার রিকশার চাকা। শহরের গলাচিপার সামনে যখন এ জট তখন তিনি ভেবেছিলেন হয়তো জ্যাম। কিন্তু ২০ মিনিট পরেও যখন চাকা চলেনি। তখন তিনি খবর পেলেন চাষাঢ়া পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদের প্রেস বিফ্রিং চলছিল।

এসপি হারুনের কথা শুনে প্রচন্ড রোদের তাপেও রোজার মধ্যেও কোন কষ্ট লাগেনি আহমেদ হোসাইনের। একবাক্যে বলতে থাকেন, ‘নারায়ণগঞ্জে রেকর্ড গড়েছেন হারুন অর রশিদ। তাঁকে স্যালুট জানাই। পুলিশ সুপার আর পুলিশ তো জনতার। তাদের প্রতি আমাদের সমর্থন আছে। কিন্তু তাই বলে সড়ক বন্ধ করবে কেন।’

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ১৬ মে দুপুরে চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পবিত্র মাহে রমজান, বৌদ্ধ পূর্ণিমা ও আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে  সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। বেলা ১২টা ৫২ মিনিটে পুলিশ সুপারের গাড়ি বহর শহীদ মিনারে এসে পৌছায়। কিন্তু সোয়া ১২টা হতেই শহরের প্রধান সড়ক বঙ্গবন্ধু সড়কের পশ্চিম পাশ পুরোটাই বন্ধ করে দেয়।

এছাড়া নবাব সলিমুল্লাহ সড়ক, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড সিগনালে আটকে রাখা হয় গাড়ি। ১৫-২০ মিনিট পরপর প্রতিটি সড়কের সিগনাল খুলে দেওয়ার কারণে প্রতিটি সড়কেই বাধতে থকে ভয়াবহ যানজট। প্রতিটি সড়কেই দেখা যায় যানবাহনের লম্বা সারি।

পরবর্তিতে ৩০ মিনিট পর প্রতিটি সড়ক এক সাথে খুলে দিলে চাষাঢ়া গোল চত্ত্বরে তৈরী হয় যানবাহনের জটলা। এতে প্রতিটি সড়কেই যাত্রীদের অপেক্ষা করতে হয় ঘণ্টার পর ঘণ্টা। এতে ১০ মিনিটের পথ পারি দিতে সময় লাগে ৩০মিনিট।

এদিকে পুলিশ সুপারের কারণে গাড়ি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এমন খবর যানজটে আটকা পড়ারা জানলেও তারা তেমন কোন ক্ষোভ প্রকাশ করেনি। বরং এসপির কথা শুনে সকলেই সাধুবাদ জানান। আর গাড়ি বন্ধ করে দেওয়ার জন্য দোষারোপ করেন ট্রাফিক পুলিশকে। ভুক্তভোগীদের মতে প্রচন্ড রোদের মধ্যে রোজার সময়ে এভাবে ট্রাফিক পুলিশ গাড়ি বন্ধ না করলেও পারতো।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও