ডিসেম্বর শীতলক্ষ্যা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর, ওয়াসা হস্তান্তর শীঘ্রই

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৫ পিএম, ১৪ জুলাই ২০১৯ রবিবার

ডিসেম্বর শীতলক্ষ্যা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর, ওয়াসা হস্তান্তর শীঘ্রই

নারায়ণগঞ্জে নগরবাসীর দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘবে কয়েকটি প্রকল্পের সুখবর দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

১৪ জুলাই রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নগর ভবন প্রাঙ্গনে বাজেট ঘোষণাকালে এসকল সুখবর দেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। যার মধ্যে রয়েছে নারায়ণগঞ্জবাসীর বহুল প্রতিক্ষিত শীতলক্ষ্যা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, গৃহস্থালী বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন, প্লাষ্টিক বর্জ্য থেকে জ্বালানী তেল উৎপাদন এবং ওয়াসা হস্তান্তর।

বাজেট ঘোষণাকালে মেয়র আইভী বলেন,  নারায়ণগঞ্জ শহর ও বন্দরবাসীর সেতুবন্ধন স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৭ বছরেও হয়নি। নারায়ণগঞ্জবাসীর বহুল প্রতিক্ষিত শীতলক্ষ্যা সেতুর নির্মাণ কাজ ২০১৮ সালের ৯ অক্টোবর একনেক সভায় অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ৫৯০ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ব্যয়ে সরকারের অর্থায়নে ১৩৮৫ মিটার দৈর্ঘ্যে ও ১২.৫ মিটার প্রস্থ বিশিষ্ট সেতুটি নগরীর ৫নং ঘাটে নির্মিত হবে। ইতিমধ্যে কনসালট্যান্ট নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে। আশা করছি আগামী ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রীকে দিয়ে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন সম্ভব হবে। উক্ত প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ২০১৯-২০ অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে (এডিপি) ১৮২.৭৩ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। জুন ২০২২ সালের মধ্যে ব্রিজটির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে। ব্রীজটি নির্মিত হতে যাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী ও এমপিসহ সবার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন আইভী।

সভায় এক প্রশ্নের উত্তরে মেয়র আইভী জানান, ওয়াসাকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের অধীনে হস্তান্তরের বিষয়ে আলোচনা চলছে। আগামী ১৬ জুলাই এলজিআরডি মন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে তাদের মিটিং হবে। ওই মিটিংয়ে ওয়াসাকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে। সেক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন শহর, বন্দর ও সিদ্ধিরগঞ্জে ওয়াসার পানি সরবরাহ করতে সমর্থ হবে।

আইভী জানান, ৩৪৫ কোটি ৯১ লাখ ৩১ হাজার টাকা ব্যয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কঠিন বর্জ্য সংগ্রহ ও অপসারণ ব্যবস্থাপনা শীর্ষক প্রকল্পের বিপরীতে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে ৩০৫ কোটি ১১ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। নগরীতে ময়লা নিয়ে সমস্যার অচিরেই সমাধান করা হবে। বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য জালকুড়িতে ২৩.২৮ একর জমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। জেলা প্রশাসনকে অধিগ্রহণ কাজে ২৯৯ কোটি ১৩ লাখ ৪৯ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। ইতিমধ্যে জমি আমাদেরকে জেলা প্রশাসন থেকে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। বালু ভরাট ও দেয়াল নির্মাণের টেন্ডার আহবান করা হয়েছে। স্থায়ী ডাম্পিং গ্রাউন্ড নির্মাণের লক্ষ্যে অবশিষ্ট ৪০ কোটি ৭৯ লাখ ৮১ হাজার  টাকা ব্যয়ে ভূমি উন্নয়ন, সীমানা প্রাচীর নির্মাণ ও যানবাহন ক্রয় খাতে ব্যয় করা হবে। এছাড়া দৈনিক ৫০০ টন বর্জ্য হতে ৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাথে সমঝোতা চুক্তি সাক্ষরিত রয়েছে। নারায়ণগঞ্জ শহরে ৬টি বহুতল বিশিষ্ট পরিচ্ছন্ন কর্মী নিবাস নির্মিত হতে যাচ্ছে। যার মধ্যে টানবাজারে ২টি, ইসদাইরে ২টি ও ১৭নং ওয়ার্ডে ২টি। ২৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে বাবুরাইল খালকে আধুনিকায়তন করা হচ্ছে। যার মধ্যে ইতিমধ্যে ৫০ থেকে ৬০ কোটি টাকার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। শহরের দেওভোগে প্রস্তাবিত শেখ রাসেল পার্কের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। গাছগুলো ছোট থাকার কারণে বর্তমানে শুধু বিকেল ৪টা থেকে ৬টা পর্যন্ত খোলা রাখা হচ্ছে। জল্লারপাড় খাল পুণ:খননের কাজ টেন্ডার সম্পন্ন হয়েছে। সিদ্ধিরগঞ্জে ১২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে লেক উন্নয়নের কাজ চলমান রয়েছে। সেখানে বিভিন্ন অনুষ্ঠান করার জন্য উন্মুক্ত মঞ্চও থাকবে। জাইকা ও জিওবি’র আর্থিক সহযোগিতায় সিটি গর্ভানেন্স প্রকল্পের (সিজিপি) অধীনে ৪০০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ গত দুই বছর ধরে চলমান রয়েছে। এছাড়া প্লাষ্টিক বর্জ্য থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন প্লান্ট নির্মাণ প্রকল্প হাতে নিয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন। এই জ্বালানি তেল সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন যানবাহনে ব্যবহৃত হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) নূরে আলম। সঞ্চালনায় ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এহতেশামুল হক। এছাড়াও সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ ও সুধী সমাজের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও