সাদরিল ইস্যুতে চুপ কাউন্সিলররা

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৪০ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৯ রবিবার

সাদরিল ইস্যুতে চুপ কাউন্সিলররা

জনপ্রতিনিধিরা একে অপরের বিপদ আপদে এগিয়ে আসবে এটাই স্বাভাবিক। তারই ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ইস্যুতে একে অপরের সহযোগিতায় এগিয়ে আসলেও এবার ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম মুহাম্মদ সাদরিলের ক্ষেত্রে সেটা পরিলক্ষিত হচ্ছে না। এখন পর্যন্ত শুধুমাত্র একজন কাউন্সলরই এর প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। কিন্তু বাকীরা সবাই নিরব ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। অথচ অন্য কাউন্সিলরদের বেলায় সেটা পরিলক্ষিত হয়নি।

জানা যায়, গত ১৮ জুলাই নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায় সরকার দলীয় এক এমপির গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়। আর এতে গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে বিএনপির সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনের ছেলে ও ৫নং কাউন্সিলর গোলাম মুহাম্মদ সাদরিল সহ ১০জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। এমপির ব্যক্তিগত সহকারী সোহলে বাদী হয়ে ১০জনকে জ্ঞাত ও ৪০জনকে অজ্ঞাত আসামি করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ওই মামলা দায়ের করেন। এছাড়াও মামলায় গাড়ি ভাঙচুরে ৫ লাখ টাকার ক্ষতি, এমপির সহকারীদের মারধর সহ শ্লীলতাহানীর অভিযোগ করা হয়। অথচ এই অভিযোগের ব্যাপারে স্থানীয়দের অনেক আপত্তি রয়েছে।

কিন্তু স্থানীয়দের বক্তব্য হচ্ছে, কাউন্সিলর গোলাম মুহাম্মদ সাদরিরেলর বিরুদ্ধে করা এই অভিযোগ একেবারেই মিথ্যা। বরং কাউন্সিলর এসেছিলেন জনরোষের কবল থেকে এমপিকে বাঁচানোর জন্য। এলাকার জনপ্রতিনিধি হিসেবে এগিয়ে যাওয়াটাই তার কর্তব্য। এটা কখনও অপরাধের পর্যায়ের পড়ে না। তবে এই ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের অন্য কাউন্সিলররা এগিয়ে আসছেন না। শুধুমাত্র একজনই এর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। বাকিদের কোন বিবৃতি বা কোন কর্মসূচি লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। তারা সাদরিলের পাশে এসে দাড়াচ্ছেন না।

এর আগে নিখোঁজ শিশু সাদমান সাকি ইস্যূতে তার বাবা সৈয়দ ওমর খালেদ এপনের নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল আলমকে জড়িয়ে বক্তব্য দেয়ায় অন্য কাউন্সিলরা প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। গত ২০ মার্চ নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের ৪র্থ তলায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে কাউন্সিলররা দাবী করেছিলেন, যে নিখোঁজ সাদমান সাকির বাবা সৈয়দ ওমর খালেদ এপন মানববন্ধনে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যে প্রণোদিত। নাজমুল আলম সজল বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের সাথে জড়িয়ে থাকায় একটি কুচক্রী মহলের ইন্ধনে তাকে সামাজিক ও রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্যই এই অপপ্রচার চালাচ্ছে।

ঠিক একইভাবে অন্য কাউন্সিলরের বেলায় পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের অন্য কাউন্সিলররা। স্থানীয় বিভিন্ন ইসূতে একে অপরের সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছেন। কিন্তু কাউন্সিলর সাদরিলের বেলায় ব্যতিক্রম লক্ষণীয় হচ্ছে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও