খানপুরের ফয়সাল হত্যাকাণ্ডের মামলা তুলে নিতে স্বজনদের হুমকি

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৩২ পিএম, ২৪ আগস্ট ২০১৯ শনিবার

ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জে সদরের খানপুর এলাকায় প্রেমিকার সাথে দেখা করতে গিয়ে প্রেমিকার ভাই আসিফ ও তার বন্ধুদের প্রহারে নিহত ফয়সাল হোসেন (১৯) এর পরিবারকে মামলা তুলে নিতে হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলার বাদি নুরুজ্জামান বাদি হয়ে ২৪ আগস্ট শনিবার ফতুল্লা মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন।

সাধারণ ডায়েরী সূত্রে জানা যায়, গত ৩১ জুলাই নারায়ণগঞ্জ সদরের খানপুর এলাকার আলতাফ মিয়ার ছেলে আসিফ (১৯) সহ তার পাঁচ বন্ধু মিলে প্রেমিকার সাথে দেখা করতে যাওয়ার অপরাধে ফয়সাল হোসেনকে হত্যা করে। এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় আসিফ (১৯), রওনক হোসেন সানজি (২০), মিলন (১৯), সাকিব হোসেন (১৯), সৈয়দ সায়ীম হোসেন (১৯) ও শাওন বিন দেওনজি ওরফে মীম (১৯) নামে ছয়জনকে আসামী করে নিহত ফয়সালের পিতা নুরুজ্জামান বাদি হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় গত ১ আগষ্ট হত্যা মামলা দায়ের করে।

এঘটনায় সদর থানা পুলিশ পাঁচ আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত আসামীদের জেলহাজতে প্রেরণ করে। ছয় নাম্বার আসামী শাওন বিন দেওনজি ওরফে মীমকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। অন্যান্য আসামীরা বর্তমানে জেলহাজতে রয়েছে বলে জানা যায়। এদিকে ১ নং আসামী আসিফের পিতা আলতাফ মিয়া (৪৫), ২নং আসামী রওনক হোসেন সানজির পিতা মোশারফ হোসেন (৪০) ও ৩ নং আসামী মিলনের পিতা আব্দুর রউফ ফিটার (৪২) সহ অজ্ঞাত ৩/৪ জন গত ২২ আগষ্ট দুপুর ২ টায় নারায়ণগঞ্জ আদালত চত্বরে বাদি নুরুজ্জামনের স্ত্রী শিউলী আক্তারকে হত্যা মামলাটি তুলে নিতে চাপ প্রয়োগ করে। বাদির স্ত্রী মামলা তুলতে অপারগতা প্রকাশ করলে বিবাদীগণ ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ মারধর করতে উদ্যত হয়। মামলা উঠিয়ে না নিলে হত্যা মামলায় বাদির দুই ছেলে সজিব ও ফাহিমকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয় বলে জিডিতে উল্লেখ করা হয়।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও