জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে লিংক রোডে আবর্জনার স্তুূপ

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২৯ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ সোমবার

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে লিংক রোডে আবর্জনার স্তুূপ

অন্যতম ও গুরুতপূর্ণ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড। আর এ রোডের পাশেই ফেলা হচ্ছে ময়লা আবর্জনা। আর এ ময়লা আবর্জনা যেখানে ফেলা হচ্ছে সেটাও প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাদের অফিসে যাওয়া আশার পথে। যেখান থেকে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে। অফিসে ঢুকতে কিংবা বের হতে হলেই দর্শন করতে হয় এ ময়লা আবর্জনার। তারপরও কোন পদক্ষেপ নেই কারো।

১৪ অক্টোবর সোমবার দুপুরে সরেজমিনে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মূল ফটকের সামনে দেখা গেছে এ দৃশ্য। এখানে দেখা যায় বস্তা ভরে ময়লা আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। এক প্রকার ময়লার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। এর পাশ দিয়ে মানুষ যাতায়াতে নাক চেপে চলতে হয়। আর এ ময়লা আবর্জনার সামনে দিয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার সহ ঊর্ধ্বতনরা চলাচল করেন। তাছাড়া এ জায়গাটি আরো গুরুতপূর্ণ কারণ এখানেই রয়েছে নারায়ণগঞ্জ আদালত। আদালতেও যাওয়ার আশার সময়ও এ ময়লার সামনে দিয়ে চলাচল করতে হয়।

স্থানীয় দোকানদার বলেন, আশে পাশে এলাকার ময়লা আবর্জনা এখানে ফেলা হয়। বিশেষ করে জেলা প্রশাসকের গেটের সামনে যেসব দোকান বসে এবং খাবারের দোকানগুলো থাকে এর ময়লা আবর্জনাই বেশি ফেলা হয়। আর শুরুটা হয়েছে কোরবানী ঈদে পশুর বর্জ্য ফেলা থেকে। কিন্তু সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ি এখন আর এখানে পরিস্কার করে না। ফলে ময়লা জমে এখন ভাগাড় হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু প্রশাসনের লোকজন একটা ফোন করে বললেই এখানে পরিস্কার করে দেয়। কিন্তু তারা এখান দিয়ে যায় কিন্তু এটা তাদের চোখে পড়ে না। সবাই যেন গাড়ির কালো গ্লাস টেনে আঁড়াল করে থাকতে চায়।

দোকানদাররা বলেন, দেশের বিভিন্ন পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন থেকে শুরু করে বিদেশী পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কাছে আসেন। এছাড়া জেলা পুলিশ সুপারের কাছেও আসে। কিন্তু তাদের গেটে প্রবেশের আগেই যখন রাস্তার পাশে ময়লার স্তূপ দেখে এটা নিশ্চয় সুন্দর নয়। তাদের ভিন্ন মনোভাব তৈরি হয়।

ময়লার স্তূপের কলার ছড়ি ফেলছেন চায়ের দোকানদার ফিরোজ। তিনি বলেন, আগে সিটি করপোরেশনের গাড়ি এসে ময়লা পরিস্কার করে নিয়ে যেতো। কিন্তু ৬ মাসের বেশি হবে এখন আর পরিস্কার হয় না। আশে পাশের সবাই ময়লা ফেলে এখানে জমে গেছে। কিন্তু কে পরিস্কার করবে। বড় স্যারেরা (ডিসি এসপি) একটা ফোন দিলে সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীরা এসে পরিস্কার করে দিবে। কিন্তু কে করবে?

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ময়লা আবর্জনা আগে ফতুল্লা স্টেডিয়ামের কাছে ভাগাড়ে ফেলা হতো। কিন্তু স্থানীয়দের বাধায় সেখানে ময়লা ফেলা বন্ধ হয়ে যায়। এখন ময়লা আবর্জনা সৈয়দপুর এলাকায় ফেলা হয়। ফলে সিটি করপোরেশনের নিয়োজিত এনজিওর ময়লা নেওয়া গাড়িগুলো এখন আর আসে না। তাছাড়া জেলা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ওই এলাকাটা সিটি করপোরেশনের অন্তর্ভুক্ত নয়। এটা ফতুল্লা ইউনিয়ন এলাকা। সেহেতু সিটি করপোরেশনের কর্মীরা সেখানে গিয়ে ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে না। এখন ইউনিয়ন পর্যায়ে পরিচ্ছন্ন কর্মীরাই এ ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করবে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও