ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর প্রভাবে দুর্ভোগে নারায়ণগঞ্জবাসী

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:১৯ পিএম, ৯ নভেম্বর ২০১৯ শনিবার

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর প্রভাবে দুর্ভোগে নারায়ণগঞ্জবাসী

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর প্রভাব পড়েছে নারায়ণগঞ্জ। ৯ নভেম্বর শনিবার সকাল থেকে ঠান্ডা আবহাওয়ার সঙ্গে গুড়িগুড়ি বৃষ্টি শুরু হয়েছে। ফলে সূর্যের দেখা মিলেনি। সরকারি ভাবে জেএসসি পরীক্ষা বন্ধ থাকলেও কাক ভেজা হয়ে অফিসে যেতে হয়েছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী, শ্রমিক সহ বিভিন্ন পেশার মানুষকে।

জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টি থেমে থেমে শনিবার বিকেল পর্যন্ত স্থায়ী ছিল। ফলে শুক্রবার বিকেল থেকেই নারায়ণগঞ্জ থেকে ছেড়ে যাওয়া সকল যাত্রীবাহী নৌ যান বন্ধ রয়েছে। এতে করে ভোগান্তিতে পড়ছে যাত্রীরা। অনেক যাত্রীই টার্মিনালে অপেক্ষা করছেন কখন লঞ্চ চালু হবে সেজন্য। অনেকেই রাত্রি যাপন করেছেন লঞ্চ টার্মিনালের ফ্লোরে ঘুমিয়ে। এতে সব থেকে বেশি দুর্ভোগে আছেন নারী যাত্রীরা।

সরেজমিনে শহরের চাষাঢ়ায় ঘুরে দেখে গেছে, গুড়িগুড়ি বৃষ্টিতেও শহরের প্রধান বঙ্গবন্ধু সড়কে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এতে করে সাধারণ মানুষের চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। এছাড়াও বৃষ্টিতে সব থেকে বেশি দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে নি¤œ শ্রেনির পেশার মানুষকে। অনেকেই ফুটপাতে দোকান খুলতে পারেনি। ফলে ফুটপাতও ছিল ফাঁকা। আর বৃষ্টির কারণে অন্য দিনের মতো শহরের তেমন যানজটও চোখে পড়েনি।

চাষাঢ়া এলাকার রিকশা চালক বজলু রহমান বলেন, ‘টিভিতে শুনেছি ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আসছে। তাই আবহওয়া খারাপ বৃষ্টি হচ্ছে। এসব ঘূর্ণিঝড় তো দেশে আসে না, আসে আমাদের উপরে। কারণ বৃষ্টি হলে ঘরে বসে থাকলে রান্নার চুল জ্বলবে না। তাই বৃষ্টিতে ভিজে রিকশা চালাতে হয়। ভিজে রিকশা চলালেও যাত্রী থাকে না বলে তেমন ভাড়া পাওয়া যায় না। উল্টো জ্বর ঠান্ডায় কষ্ট পেতে হয়।’

প্রেসক্লাবের পাশে ফুটপাতে দোকান নিয়ে বসে থাকা তায়বুর মিয়া বলেন, শুক্রবার সপ্তাহের ছুটির দিন কিন্তু সেইদিনই বেঁচাকেনা হয়নি বৃষ্টির জন্য। এমন দুইদিন বৃষ্টি থাকা মানে আমাদের জন্য অভিশাপ।

নারায়ণগঞ্জ টার্মিনালে রাত্রি যাপন করা ফয়সাল উদ্দিন বলেন,‘চাঁদপুর যাবো কিন্তু শুক্রবার বিকেলে টার্মিনালে এসে জানতে পারি লঞ্চ চলবে না। যার জন্য সারারাত টার্মিনালে ছিলাম। শনিবারও কোথায় যাবো বুঝতে পারছি না। তাই এখানেই অপেক্ষা করছি।’

জাতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দিকে ঘণ্টায় ১৩ থেকে ১৫ কিলোমিটার বেগে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ উপকূল থেকে ২৮০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড়টি। শনিবার রাতের দিকে দেশীয় উপকূল অঞ্চলগুলোতে আঘাত হানতে পারে বুলবুল। যার জন্য নদী বন্দরগুলোকে ১০ নম্বর মহা বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। আর এ ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে শুক্রবার বিকেল থেকে নারায়ণগঞ্জে থেমে থেমে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। তবে মধ্যরাতে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হয়। একই সঙ্গে ঠান্ডা বাতাস বইছে। তাপমাত্রাও অনেকটা হ্রাস পেয়েছে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও