দুর্ঘটনায় মায়ের মৃত্যুতে মেডিকেলের পরীক্ষা দেওয়া হলো না মেয়ের

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:২৬ পিএম, ৯ নভেম্বর ২০১৯ শনিবার

দুর্ঘটনায় মায়ের মৃত্যুতে মেডিকেলের পরীক্ষা দেওয়া হলো না মেয়ের

৯ নভেম্বর শনিবার ছিল মেয়ে সুমাইয়া ফারহা তিথির মেডিকেলের প্রথম বর্ষের টার্ম পরীক্ষা। তবে এর আগের দিন শুক্রবার তাদের পরিবারে নেমে আসে অমানিষার ঘোর অন্ধকার। প্রাণের চেয়ে প্রিয় মাকে হারিয়ে শোকার্তে শনিবার আর মেডিকেলের টার্ম পরীক্ষা দেয়া হয়নি মেয়ের।

জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় নারায়ণগগঞ্জ ফতুল্লার ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে পুলিশ লাইনসের সামনে পুলিশ লাইনস স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা মাহমুদা বেগম অটোরিকশার চাপায় নিহত হওয়ার ঘটনায় পুরো পরিবার বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। শিক্ষিকার মাহমুদার স্বামী মো. মাহাবুব আলম ব্যবসায়ি। সংসারে দুটি সন্তান দুজনেই মেয়ে। বড় মেয়ে সুমাইয়া ফারহা তিথি ঢাকা সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ প্রথম বিভাগের ছাত্রী ও ছোট মেয়ে লাবিবা তাহসীন শহরের মাসদাইর গভমেন্ট গার্লস স্কুলের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী।

এদিকে শনিবার বিকেলে শহরে মাসদাইর এলাকায় এন এস টাওয়ারের তৃতীয় তলার ফ্ল্যাটের বাসিন্দা নিহত শিক্ষিকা মাহমুদা বেগমের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, মা হারোনের শোকে দুই মেয়ের কান্না কেউ থামাতে পারছে না। বড় মেয়ে মেডিকেলে প্রথম বর্ষের ট্রাম পরীক্ষা থাকলেও পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেনি। মায়ের শোকে বারবার মূর্ছা যাওয়া দুই মেয়েকে সান্তনা দিতে গিয়ে বারবার কাঁদছে বাবা নিজেই।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও