সংস্কার করা বিজয়স্তম্ভ ভেঙে দিচ্ছে বেপরোয়া যানবাহন

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:২০ পিএম, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ সোমবার

সংস্কার করা বিজয়স্তম্ভ ভেঙে দিচ্ছে বেপরোয়া যানবাহন

নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাঢ়া গোল চত্ত্বরে অবস্থিত বিজয় স্তম্ভ সংস্কার কাজে শেষে উদ্বোধনের মাত্র ৯ দিনের ব্যবধানে যানবাহনের বেপরোয়া গতির কারণে ভেঙ্গে যেতে শুরু করেছে। এতে করে লাখ টাকা খরচ করে সংস্কারকরা বিজয় স্তম্ভ আবারো ভাঙ্গা জঞ্জালে পরিণত হচ্ছে।

২৩ ডিসেম্বর সোমবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায় বিজয় স্তম্ভের প্রবেশ পথের সিঁড়ি ভেঙ্গে গেছে ও এসএস স্টিল দিয়ে তৈরী সিঁড়ির হাতল বেপরোয়া যানবাহন সজোরে আঘাত হানায় দুমড়ে মুচড়ে গেছে। সিঁড়ির টাইল্স ফেটে উঠে এসেছে। এছাড়া আরো বেশ কয়েকটি জায়গায় দেওয়ালে ফাটল দেখা দিয়েছে।

বেপরোয়া গাড়ি চালকদের এমন অসাবধানতার কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন।

ক্ষোভ প্রকাশ করে নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, এটা এত সুন্দরভাবে আধুনিকায়ন করা হলো। বেপরোয়া গাড়ির ধাক্কায় এসএস এর মত আধুনিক সিড়ির হাতল ভেঙ্গে গেছে। এটা অবশ্যই দুঃখজনক। নারায়ণগঞ্জের মত বিজয়স্তম্ভকে জনগন নিজের সম্পদ হিসেবে ব্যবহার করা উচিত। রাতে চালকদের বিজয় স্তম্ভের চতুর্দিক সতর্কভাবে চলাচলের জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৯৯০ সালে জাতির বীর সন্তান মহান মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে এই স্মৃতিস্তম্ভটি স্থাপন করা হয়। তিন খুঁটি বিশিষ্ট স্থাপনাটির ভেতরের অংশে রয়েছে মুক্তিযোদ্ধাদের নাম ফলক। প্রতিবছর বিজয় দিবস ও মহান স্বাধীনতা দিবসে নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ বিজয় স্তম্ভে ফুল দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন। যা এই স্থাপনাটির গুরুত্ব আরো কয়েকগুণে বাড়িয়ে দেয়।

বিজয় স্তম্ভটি ২৯ বছর আগে স্থাপন করা হলেও জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে নির্মাণের পর একবারও সংস্কার করা হয়নি। যে কারণে স্থাপনাটির বিভিন্ন জায়গায় ভেঙ্গে গিয়েছিল। বিজয় স্তম্ভের গায়ে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সংগঠনের মিছিল সমাবেশে রঙ দিয়ে লেখা ও ব্যানার পোস্টার টাঙানোর কারণে এর সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। তাই দীর্ঘদিন পর জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে বিজয় স্তম্ভকে নতুন ভাবে সাজানোর পদক্ষেপ নেওয়া হয়। যার বাজেট ধরা হয়েছে ৩০লাখ টাকা।

গত ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসে সর্বস্তরের জনগনের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য পুরোপুরি সংস্কার কাজ সম্পন্ন না করে একদিন আগেই সর্বসাধরণের জন্য ইদ্বোধন করেছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন। নতুন করে সংস্কারের জন্য ২৫লাখ টাকা খরচ করা হয়েছে আরো প্রায় ৫রাখ টাকার সংস্কার কাজ করা হবে বলে তিকনি জানিয়েছিলেন।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও