কারাগারের সামনে মানুষের আড্ডা

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২৯ পিএম, ২৬ মার্চ ২০২০ বৃহস্পতিবার

কারাগারের সামনে মানুষের আড্ডা

করোনাভাইরাসের প্রভাব থেকে রক্ষা পেতে একের পর এক পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার। জনসমাবেশ ঠেকাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট, পর্যটন কেন্দ্র, সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা সহ দেশের সকল গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু এর ঠিক উল্টো পথে হাটছে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগার কর্তৃপক্ষ। সরকার বারবার জনসমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করলেও জেলা কারাগারের সামনে পার্ক আদলে নির্মিত স্থানে অবাধে আড্ডা দিয়ে যাচ্ছে শতাধিক মানুষ।

২৬ মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে জেলা কারাগারের সামনে দেখা যায় ভয়াবহ এই দৃশ্য। নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের সামনে কারা কর্তৃপক্ষের তৈরী পার্কে শতাধিক দর্শনার্থী একত্রিত হয়ে আড্ডায় মেতেছে। শহরে জেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী, র‌্যাব, পুলিশ দফায় দফায় বিভিন্ন জায়গায় হানা দিলেও সেখানে কোনো কর্তৃপক্ষ হানা দিচ্ছে না। জেলা কারাগার কর্তৃপক্ষের পাহারায় তাঁরা নির্ভয়ে আড্ডায় মেতে উঠেছে।

এ প্রসঙ্গে কারা এক কারা পুলিশ নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, এখানে যারা আছে তাঁরা সবাই কারাবন্দীদের সাথে দেখা করার জন্য এসেছে। এখানে বসে সবাই গল্প করছে।

এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের জেলার সুভাষ ঘোষের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

এর আগেরদিন নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে বন্দিদের জন্য টেলিফোন বুথের ব্যবস্থা করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। এ ব্যবস্থার মাধ্যমে বন্দিরা কারাগার থেকে নিজের পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন।

২৫ মার্চ (বুধবার) সকালে জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ টেলিফোন বুথ উদ্বোধন করেন। এ বুথে মোট ১০ টি টেলিফোন রয়েছে। প্রত্যেকটি ফোনে রয়েছে রেকর্ডিংয়ের ব্যবস্থা। যাতে কোনো বন্দি কার সঙ্গে ও কি কথা বলছে তার উপর কারা কর্তৃপক্ষ নজর রাখতে পারে।

জানা যায়, সপ্তাহে একবার প্রত্যেক কারা বন্দি নিজের পরিবারের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলতে পারবে। তবে ৫ মিনিটের বেশি কেউ কথা বলতে পারবে না। তাছাড়া মিনিট প্রতি ১ টাকা করে কেটে নেয়া হবে বন্দির পিসি (প্রিজন ক্যান্টিন) একাউন্ট থেকে। যে একাউন্টে পরিবারের লোক বন্দির ব্যক্তিগত খরচের জন্য টাকা জমা করে থাকে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও