চাষাঢ়ায় টহলে মাস্ক ব্যবহারে উৎসাহ সেনাবাহিনীর

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:১৭ পিএম, ২৯ মে ২০২০ শুক্রবার

চাষাঢ়ায় টহলে মাস্ক ব্যবহারে উৎসাহ সেনাবাহিনীর

‘করো মাস্ক নেই, করো মাস্ক আছে, কারো মাস্ক থেকেলেও সেটা যেখানে থাকার কথা সেখানে নেই আবার কারো মাস্ক পকেটে, করো করো অভিযোগ খুব গরম মাস্ক পরতে ভালো লাগে না, কেউ আবার মাস্ক পরলে শ্বাস নিতে পারি না’ এমন নানা অভিযোগে এখন প্রতিনিয়ত ভাঙছে স্বাস্থ্যবিধি। কিন্তু করোনা প্রতিরোধে নগরবাসীকে এসব কিছু মানতে আহবান জানিয়ে ছিলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে শুরু করে সরকার, ডাক্তার, মেয়র সহ সচেতন মহল।’

২৯ মে শুক্রবার সকালে শহরের চাষাঢ়া গোল চত্ত্বর এলাকায় দেখা গেছে এ দৃশ্য। তবে এসব অসচেতন মানুষকে সচেতন করতে বার বার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সেনা সদস্যরা।

এর আগে গত ২৪ মার্চ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষেত্রে প্রশাসনকে সহায়তা করতে নারায়ণগঞ্জ শহরে টহল শুরু করে সেনাবাহিনী। এরপর থেকেই ধারবাহিক ভাবে গণসচেতনতার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে সেনা সদস্যরা।

এর ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে চাষাঢ়া গোল চত্ত্বরে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড ও ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে যাতায়াত করা যানবাহন থামিয়ে মানুষকে সচেতন করেন। এসময় সবাইকে মাস্ক পড়তে বাধ্য করেন। যাদের মাস্ক ছিল না তাদের কিনতে বাধ্য করেন।’

ফয়সাল আহমেদ বলেন, ‘সেনাবাহিনী আমাদের জিজ্ঞেস করেছে কেনো মাস্ক পরি নাই। তখন বলেছি বাসা থেকে আনতে ভুলে গেছি। পরে তেমন কিছু বলেনি শুধু মাস্ক কিনতে বলেছে। তাই মাস্ক কিনছি।’

মাস্ক বিক্রেতা মো. রায়হান বলেন, ‘সকাল ১০টা থেকে সেনাবাহিনী অভিযান শুরু করে। এর মধ্যে ১০০ থেকে ১৫০জন মাস্ক কিনেছে। তবে তারা কারো সঙ্গে কোন খারাপ ব্যবহার করেনি। সবাইকে শুধু মাস্ক ব্যবহার করার জন্য বলেছে।’

এসময় সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে সেনা সদস্যরা বলেন, ‘আপনারা সচেতন না হলে আমরা এভাবে রাস্তায় দাঁড়িয়ে সচেতন করতে পারবো না। কারণ আপনি নিজে সচেতন হতে হবে। তবেই আপনি সুস্থ থাকবেন। করোনা থেকে মুক্ত থাকবেন। স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন।’


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও