পুরো বাংলাদেশকে লকডাউন করা হতে পারে!

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৪৮ পিএম, ১০ জুলাই ২০২০ শুক্রবার

পুরো বাংলাদেশকে লকডাউন করা হতে পারে!

নারায়ণগঞ্জে ফুটপাত থেকে হকারদের উচ্ছেদ করা হলেও মানবিক দিক বিবেচনায় ঈদ পর্যন্ত বসার সুযোগ চেয়ে সিটি করপোরেশনের মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন এমপি সেলিম ওসমান।

সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের প্রতি অনুরোধ রেখে সেলিম ওসমান বলেন, ‘‘আমি মেয়রের কাছে অনুরোধ রাখবো ফুটপাতে যারা হকার আছে তাদেরকে আগামী ঈদ পর্যন্ত সুযোগ দেওয়া হোক। কারণ কোন মানুষই পারে না কোন মানুষের অসুবিধা সৃষ্টি করতে। তবে পুলিশ প্রশাসনকে কঠোর হতে হবে। যাতে করে তারা যত্রতত্র দোকান নিয়ে না বসতে পারে সে বিষয়টা কঠোরভাবে খেয়াল রাখতে হবে। কারণ কখন কি হবে আমরা কেউ জানি না। এমনও হতে পারে পুরো বাংলাদেশকে আগামী দুই মাসের জন্য লকডাউন করে দেওয়া হতে পারে। এটার সম্ভাবনা আছে। এভাবে লকডাউন দিয়ে পৃথিবীর অনেক দেশ করোনা নিয়ন্ত্রনে এনেছে। আমাদের দেশেও এমন হতে পারে।’’

শুক্রবার ১০ জুলাই বিকেল সাড়ে ৫ টায় বন্দর খেয়া ঘাট সংলগ্ন জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপে¬ক্সে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ইউনিট কমান্ডের উদ্যোগে করোনা মহামারিতে শহীদ সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা সহ সদ্য প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা যুদ্ধকালীন কমান্ডার আমিনুর রহমান এর স্মরণে আলোচনা দোয়া মাহফিলে সেলিম ওসমান এসব কথা বলেন।

এর আগে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি দিতে গেলে হকার নেতারা উল্লেখ করেন, তিন মাস লকডাউন থাকার কারণে আমাদের সব শেষ হয়ে গেছে। এরপর সরকারের পক্ষ থেকে লকডাউন শিথিলের পর সবাইকে ব্যবসা বাণিজ্যের সুযোগ দেয়া হয়। আমরা সেই সুযোগে আমরা সর্বশেষ পুজি দিয়ে মালামাল ক্রয় করে রাস্তায় বসছিলাম। বসা অবস্থায় আমাদের মালামাল বিনষ্ট করছে আমাদের সবশেষ পুঁজি শেষ করে দিয়েছে।

তাদের এই বক্তব্যের জবাবে জেলা প্রশাসক মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, আপনারা রাস্তায় নামবেন কেন? আপনাদের বহুবার বলা হয়েছে। আমরা আপনাদের কষ্টের সাথে একমত। বিকল্প ব্যবস্থা মেয়র করবে। আপনারা মেয়রের সাথে প্রয়োজন হলে বার বার বসেন তাকে বুঝান। উনি উনার মতো করে ব্যবস্থা করবেন। আমরা জেলা প্রশাসন কিংবা পুলিশ প্রশাসন আপনাদের রাস্তায় বসতে দিতে পারি না। কোনভাবেই এই কাজটা করে দিতে পারি না। আমরা আপনাদের দাবীর সাথে একমত। আমরা বলবো মেয়রের কাছে। আমরা আইনশৃঙ্খলা সভায় বিষয়টি উপস্থাপন করবো। কিন্তু রাস্তা হচ্ছে মানুষের হাঁটার জন্য। এখানে বসার পক্ষে আমরা কেউ মত দিতে পারি না। কার্যালয়ের বারান্দার দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, এই বারান্দা দেয়া হয়েছে জনগণের সেবার জন্য। কিন্তু এখানে তো আমি রুম বানিয়ে দিতে পারি না। কোনো হকার ত্রাণ পায় নাই এই কথাটা সত্য না। আমরা বহু মানুষকে ত্রাণ দিয়েছি।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও