করোনায় নারায়ণগঞ্জ কম ঝুঁকিপূর্ণ

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৫২ পিএম, ১১ জুলাই ২০২০ শনিবার

করোনায় নারায়ণগঞ্জ কম ঝুঁকিপূর্ণ

করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্তের সংখ্যা দিন দিন কমে আসছে। ফলে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ জেলা থেকে কম ঝুঁকিপূর্ণ জেলা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। তাই আসন্ন ঈদে নতুন করে অন্য জেলায় গিয়ে সেখান থেকে এসে সংক্রামণ ছড়ানো শঙ্কায় রয়েছেন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। তাই সংক্রামণ ঠেকাতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ঈদে জেলার বাইরে নেওয়ার নির্দেশনা আসতে পারে এমনটাই ধারণা করছেন কর্মকর্তারা।

১১ জুলাই শনিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন মুহাম্মদ ইমতিয়াজ এসব তথ্য জানান।

উল্লেখ্য গত ২৪ ঘণ্টায় নারায়ণগঞ্জে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছে ৩৭ জন। তবে সুস্থ না থাকলেও মারা গেছেন একজন। ফলে এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫৫৩৯ জন আর সুস্থ হয়েছেন ৪৫২৬ জন। তবে এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত চিকিৎসাধীন বা আইসোলেশনে রয়েছেন ৯২৯ জন। যার মধ্যে আড়াইহাজারে ৬৩জন, সিটি করপোরেশন ৪০০, রপগঞ্জে ১৭৪, সদরে ১৯৫ ও সোনারগাঁওয়ে ৯৭ জন।

সিভিল সার্জন সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার নারায়ণগঞ্জের ৫টি উপজেলা ও সিটি করপোরেশন এলাকায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি। শুধু মাত্র রূপগঞ্জের গাজী পিসিআর ল্যাবের অধীনে ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজ ও ৩০০ শয্যা হাসপাতালে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

মুহাম্মদ ইমতিয়াজ বলেন, ‘নমুন সংগ্রহের চাপ কমে যাওয়ায় আমরা শুক্রবার বন্ধ রাখি। কিন্তু দুটি ল্যাবের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। তবে আজকে থেকেই আবারও নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। নমুনা প্রদানের ফি নিধারণের পর থেকেই সিটি করপোরেশন এলাকায় নমুনা সংগ্রহ বন্ধ রেখেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, তিন কারণে রোগীদের চা কমে যাচ্ছে। প্রথম, আক্রান্ত অনেক রোগী সুস্থ হয়ে গেছে। দ্বিতীয় হলো, ফলোআপ নমুনা পরীক্ষা কমে গেছে। কারণ আগে আক্রান্ত হলে দুইবার নমুনা পরীক্ষা করতে হতো। এখন সেটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকেই বন্ধ করে দিয়েছে। আর তৃতীয় হলো, করোনা পরীক্ষায় টাকা নেওয়ার পর অবশ্যই কিছুটা কমে এসেছে। এ তিনটি সম্মেলিত কারণেই রোগীদের নমুনা পরীক্ষার চাপ কমেছে।’

তিনি বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ নতুন করে রোড জোন করার কার্যকারিতা নেই। নারায়ণগঞ্জ এখন কম ঝুঁকিপূর্ণ। আগে বলা হতো, নারায়ণগঞ্জ থেকে মানুষ গিয়ে অন্য জেলাকে সংক্রামিত করেছে। কিন্তু এখন নারায়ণগঞ্জ থেকে অন্য জেলায় গিয়ে সেখান থেকে ঈদের পর নারায়ণগঞ্জে আসে সেক্ষেত্রে আক্রান্ত বাড়ার শঙ্কা রয়েছে। এসব বিষয়ে আমাদের সভা হয়েছে। সেখানে এগুলো আলোচনা হয়েছে। স্বাস্থ্য সচিবের সঙ্গে আমাদের সভা হবে। সেখানে এগুলো তুলে ধরা হবে। তবে জাতীয় পর্যায়ে এখনও কোন সিদ্ধান্ত হয়নি আগামী ঈদ কিভাবে পালন করা হবে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও