সুগন্ধা বেকারীতে আবারও সেমাইয়ের জালিয়াতি, ১লাখ টাকা জরিমানা

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৪:৩২ পিএম, ২৮ জুলাই ২০২০ মঙ্গলবার

সুগন্ধা বেকারীতে আবারও সেমাইয়ের জালিয়াতি, ১লাখ টাকা জরিমানা

নারায়ণগঞ্জে সুগন্ধা বেকারীতে আবারও অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এবার মিলেছে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য, উৎপাদনের তারিখ টেম্পারিংয়ে অভিযোগ।

মঙ্গলবার ২৮ জুলাই জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান ফারুকের নেতৃত্বে শহরের চাষাঢ়া ও আরো একটি দোকানে ওই অভিযান চলে। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক, এন এস আই এবং পুলিশ সহযোগে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে উৎপাদনের তারিখ টেম্পারিং করে পণ্য রাখা এবং বিক্রি করার অভিযোগে উক্ত প্রতিষ্ঠানের ২টি আউটলেটকে মোট ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

জব্দকৃত ২ হাজার ৭৪ প্যাকেট সেমাই ধ্বংস করার আদেশ প্রদান করা হয়।

এর আগেও অভিযানে দেখা যায় পণ্যের গায়ে তারা অগ্রিম তারিখ দিয়ে পণ্যে বিক্রি করছে। অনেকগুলো পণ্যের উৎপাদনের তারিখ নেই ও মেয়াদ উত্তীর্ণেরও তারিখ নেই। সেই সাথে বিক্রেতাদের সুবিধার্থে খুচরা মূল্যে মুছে দেয়া হয়েছে।

১৪ জুলাই মঙ্গলবার বেলা ১১টায় গলাচিপা এলাকার সুগন্ধা বেকারীর কারখানাতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ভোক্তা অধিকার আইনের ৩৭, ৪২, ৪৩, ৪৫ ও ৫১ ধারায় ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অভিযান পরিচালনাকালে দেখা যায় ফ্রিজের একই চেম্বারে মুরগির মাংস ও একই সাথে বেকারী সামগ্রী পাওয়া যায়, চেরি কালার কৌটার গায়ে আমদানীকারকের মূল্য তালিকা নেই, কৃত্রিম রং ব্যবহার করে খাদ্য পণ্য তৈরি করা, মেয়াদ উত্তীর্ন পাইন এ্যাপেল ফ্লেভার, সুগন্ধা লতা সেমাই এর গায়ে অগ্রিম উৎপাদনের তারিখ লিখেছেন এবং প্যাকেটজাত সেমাই মেয়াদ উত্তীর্ন হওয়ার পর টেম্পারিং করে নতুন মেয়াদ দিয়েছেন যার পরিমান ৭৭ কার্টুন যা ভোক্তার সাথে প্রতারণার সামিল।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জ জেলার সহকারী পরিচালক সেলিমুজ্জামান জানান, এখানে বড় প্রতারণা হয়েছে। পণ্যে উৎপাদন করেছে আজ কিন্তু তারিখ দিয়ে রেখেছে অগ্রিম। অনেকগুলো পণ্যের উৎপাদনের তারিখ নেই ও মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ নেই। সেই খুচরা মূল্যে মুছে দেয়া হয়েছে। যাতে করে যে যার সুবিধামতো মূল্যে নির্ধারণ করতে পারেন।

তিনি আরও বলেন, প্রায় ২ হাজার কেজি ক্যামিকেলের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেছে। পাশাপাশি এখানে যারা কাজ করছেন তাদের একজনের মুখেও মাস্ক ছিল না, হ্যান্ড গ্লাস ছিল না। একে অপরের গা ঘেঁষেই কাজ করছেন। যারাই এসকল কার্যক্রম করবে তাদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এ প্রসঙ্গে সুগন্ধা বেকারী মালিক নুরুল হক জানান, প্যাকেটের গায়ে হয়তোবা ১০ থেকে ১২ দিনের তারিখ এদিক সেদিক হতে পারে। সেমাইয়ের মেয়াদ এক বছর থাকে। অগ্রিম তারিখ দেয়ার প্রয়োজন ছিল না। এটা আমাদের ভুল হয়েছে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও