ডাক্তারের দেখা মেলেনি মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:২৮ পিএম, ২৯ জুলাই ২০২০ বুধবার

ডাক্তারের দেখা মেলেনি মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে

নারায়ণগঞ্জ শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রে দুপুর থেকেই ডাক্তারের দেখা মেলে না। অথচ সেখানে বিকাল সাড়ে ৩ টা পর্যন্ত ডাক্তার থাকার কথা। যার ফলে ভোগান্তির সম্মুখিন হচ্ছেন গর্ভবতী ও প্রসূতি মায়েরা।

২৯ জুলাই বুধবার দুপুর দেড়টায় মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রে সরেজমিনে দেখা যায়, কোনো ডাক্তার নেই। একজন ফিমেল মেডিকেল এ্যাটেন্ডেন্ট ও একজন ফিমেল ওয়েলফেয়ার ভিজিটর দায়িত্ব পালন করছেন। কল্যান কেন্দ্রের ডেলিভারি ওয়ার্ডে একজন প্রসূতি মা রয়েছেন। আগেরদিন অস্ত্রোপচারের তার প্রথম সন্তানের জন্ম হয়।

ফিমেল মেডিকেল এ্যাটেন্ডেন্ট আসমা আক্তার নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘ডাক্তার ঠিক সময় পর্যন্ত থাকেন। তবে আজ জেলা প্রশাসকের দপ্তরে একটি বিশেষ কাজ থাকায় তিনি একটু আগেই বেরিয়ে গেছেন। তাছাড়া দুপুরের পর তেমন কোনা রোগী আসে না। তাই ডাক্তার থেকেও কোনো লাভ নেই। কিন্তু কোনো ইমারজেন্সি আসলে ২৪ ঘণ্টা ফিমেল ওয়েলফেয়ার ভিজিটর আছে এখানে। এবং ডাক্তার কোয়ার্টারেই থাকেন।’

তবে পর পর দুইদিন দুপুর ১২ টায় গিয়েও ডাক্তারের দেখা পাননি বলে জানান নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি। তিনি বলেন, ‘আমার স্ত্রীর জন্য পরামর্শ নিতে পর পর দুইদিন দুপুরে আমি কল্যান কেন্দ্রে যাই, কিন্তু কোনো ডাক্তার ছিলেন না। অথচ আমরা জানি বিকাল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ডাক্তার থাকার কথা। পরে বাধ্য হয়ে আমার স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকায় যাই।’

এ বিষয়ে দায়িত্বরত ডাক্তার ফাতেমা শিরিনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আজ রোগী তেমন ছিল না, তাই বিশেষ একটা কাজে দ্রুত বেরিয়ে পরেছি। আর কিছুদিন আগে আমি দাপ্তরিক কাজে ঢাকায় গিয়েছিলাম। সে ব্যক্তি যদি সেদিন এসে থাকে তাহলে আমি বিষয়টা জানি না। কিন্তু আমি ফুল ডিউটি করি।’


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও