ত্বকীর হত্যার ৫ বছরেও বিচার শুরু হয়নি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২২ পিএম, ৫ মার্চ ২০১৮ সোমবার



ত্বকীর হত্যার ৫ বছরেও বিচার শুরু হয়নি

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত মেধাবী ছাত্র তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যার বিচার শুরু হয়নি ৫ বছরেও। ৬ মার্চ হতে যাচ্ছে হত্যাকান্ডের ৫ বছর। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার অপেক্ষাতেই মামলাটির চার্জশীট দেওয়া হয়নি এমন অভিযোগও নিহত পরিবারের।

আলোচিত এ হত্যাকান্ডের ঘটনার মামলায় কোন আসামীর নাম থাকলেও পরে পুলিশ সুপারকে দেওয়া অবগতি পত্রে যে ৭জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছিল তাদের কেউ এখন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায়, কেউ গ্রেপ্তার, কয়েকজন পলাতক আর একজন রয়েছেন নিখোঁজ। এছাড়া ইতোমধ্যে গ্রেপ্তারকৃতদের জবানবন্দীতে উঠে আসা ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার চেয়ে আদালতে করা আপিলও খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

ত্বকী হত্যার বিচার চেয়ে প্রতি মাসেই মোমশিখা প্রজ্জলন, সমাবেশ করে চলেছে সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চ, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোট সহ বিভিন্ন সংগঠন। মৃত্যুবার্ষিকীর মাসে মার্চে কর্মসূচীর পরিধিও থাকে একটু বেশী। তবে এরই মধ্যে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের অনুষ্ঠানে হামলাও হয়েছে কয়েক বার।

মেধাবী ত্বকীর পরিচয়
তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটি জেলা শাখার আহবায়ক ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বির দুই ছেলের মধ্যে ছেলে তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী। সে শহরের চাষাঢ়ায় ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল এবিসি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ছাত্র ছিল। ২০১৩ সালের ৭মার্চ (নিখোঁজের একদিন পর ও লাশ উদ্ধারের একদিন আগে) এ লেভেল পরীক্ষার রেজাল্টে পদার্থবিজ্ঞানে ৩০০ নম্বরের মধ্যে ২৯৭ পেয়েছিল যা সারাদেশে সর্বোচ্চ। এছাড় সে ও লেভেল পরীক্ষাতেও সে পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন পরীক্ষাতে দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ নম্বর পেয়েছিল।

নিখোঁজ, লাশ উদ্ধার ও মামলা
২০১৩ সালের ৬মার্চ বিকেলে ত্বকী শহরের শায়েস্তা খান সড়কের বাসা থেকে বেরিয়ে রাতেও বাসায় ফিরে আসেনি। পরে ৮ মার্চ সকালে শহরের চারারগোপে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে ত্বকীর লাশ পাওয়া যায়। সে রাতেই নারায়ণগঞ্জ মডেল সদর মডেল থানায় দায়ের করা মামলায় রাব্বি উল্লেখ করেন, আমার অতীত ও বর্তমান বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে আমার ভূমিকার কারণে কোন কোন মহল এ হতাকান্ডটি ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অভিযোগ শুরু, ত্বকী মঞ্চ গঠন
১০মার্চ ওই সময়ের নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি সারাহ বেগম কবরী ও রফিউর রাব্বি দুইজনই হত্যার জন্য বিশেষ মহলকে দায়ী করেন। ১৫মার্চ চাষাঢ়ায় শহীদ মিনারে সমাবেশ করে সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও রফিউর রাব্বি হত্যার জন্য সরাসরি শামীম ওসমানকে দোষারোপ করেন। পরদিন ১৬মার্চ শামীম ওসমান এ ঘটনায় তার সম্পৃক্ততার অভিযোগ অস্বীকার করে সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, ষড়যন্ত্র করে আইভী ও অন্যরা মিলে তাকে দোষারোপ করছে। ওইদিন রাতেই শামীম ওসমান বাদী হয়ে আইভীর বিরুদ্ধে জিডি করেন। ১৭মার্চ রফিউর রাব্বিকে আহবায়ক করে ২০১ সদস্য বিশিষ্ট ‘সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চ’ গঠন করা হয়।

মামলা র‌্যাবের কাছে হস্তান্তর
ত্বকী হত্যাকা-ের পর রফিউর রাব্বির দায়ের করা মামলা ওই সময়কার সদর মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের নিজেই তদন্ত শুরু করে। তখন পুলিশ রিফাত বিন ওসমানকে গ্রেপ্তার করে রিমা-ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তবে রাব্বির আবেদনে হাইকোর্টের আদেশের প্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে ওই বছরের ২০ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে র‌্যাবের কাছে হস্তান্তর করা হয়। মামলাটি এখন র‌্যাবের হেডকোয়ার্টার থেকে দেখভাল করছে।

এ ব্যাপারে র‌্যাব-১১ এর সদর দপ্তরের অধিনায়ক লে. কর্নেল কামরুল হাসান জানান, মামলাটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সে কারণে গুরুত্ব দিয়েই তদন্ত চলছে। দিনক্ষণ বলে তো আর কাজ শেষ করা যায় না। তবে আমাদের তদন্ত চলছে।

দুই আসামীর স্বীকারোক্তি ও একজনের দেশত্যাগ
ত্বকী হত্যাকান্ডের ঘটনায় র‌্যাব উসুফ হোসেন লিটন, সুলতান শওকত ভ্রমর, তায়েব উদ্দীন জ্যাকি ও সালেহ রহমান সীমান্ত নামের চারজনকে গ্রেপ্তার করে। ২০১৩ সালের ২৯ জুলাই র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার ইউসুফ হোসেন লিটন প্রথম ত্বকী মামলায় আদালতে জবানবন্দীতে সরাসরি জড়িত বলে স্বীকার করেন। তিনি জবানবন্দীতে সালেহ রহমান সীমান্তের জামতলা ধোপাপট্টির বাড়িতে সংঘটিত হত্যাকা-ের স্থান কাল পাত্র সকল কিছুর বর্ণনা করে।

অন্যদিকে এ ঘটনায় গ্রেপ্তার সুলতান শওকত ভ্রমর ২০১৩ সালের ১২ নভেম্বর আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। তবে ১৬ দিন পর অর্থাৎ ২৮ নভেম্বর ভ্রমর তার জবানবন্দি প্রত্যাহারের জন্য আদালতে আবেদন করেন। ২০১৪ সালের ২০ মার্চ নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েই নারায়ণগঞ্জ ও পরে দেশ ত্যাগ করেন ভ্রমর। সে এখনও দেশের বাইরে। আদালত ইতোমধ্যে ভ্রমরের বিরুদ্ধ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি রেখেছে।

চারজনের মধ্যে সালেহ সীমান্ত কারাগারে আছে। এছাড়া রিফাত বিন ওসমান, তায়েবউদ্দিন জ্যাকি, ইউসুফ হোসেন লিটন জামিনে রয়েছেন।

ত্বকী হত্যার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ
সবশেষ ত্বকী হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে দ্রুত তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও