৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, মঙ্গলবার ২০ নভেম্বর ২০১৮ , ২:২৮ অপরাহ্ণ

rabbhaban

গার্মেন্টস শ্রমিকদের মজুরি ৮০০০ টাকার ঘোষণা অন্যায্য


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৭:৫৩ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শুক্রবার


গার্মেন্টস শ্রমিকদের মজুরি ৮০০০ টাকার ঘোষণা অন্যায্য

গার্মেন্টস শ্রমিকদের নিম্নতম মজুরি ৮০০০ টাকার ঘোষণা প্রত্যাখ্যান এবং মজুরি পুণ:বিবেচনা করে রাষ্ট্রীয় শিল্প প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের মজুরির সাথে সংগতি রেখে নিম্নতম মজুরি ১৮০০০ টাকা ঘোষণার দাবিতে ১৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকাল ৪ টায় ২ নং রেল গেইটে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও শহরে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক নিখিল দাস, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম গোলক, সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম শরীফ, গাবতলী-পুলিশ শাখার সাধারণ সম্পাদক হাসনাত কবীর, রূপগঞ্জ উপজেলার সভাপতি মোঃ সোহেল, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম সুজন, বিসিক শাখার সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ সাইদুল, কাঁচপুর শিল্পাঞ্চল শাখার আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, গার্মেন্টস শ্রমিকদের নতুন মজুরি কাঠামো নির্ধারণের জন্য গঠিত মজুরি বোর্ডের সুপারিশে সরকার গতকাল গার্মেন্টস শ্রমিকদের নিম্নতম মজুরি ৮০০০ টাকা ঘোষণা করেছে। অথচ গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টসহ স্কপভুক্ত গার্মেন্টস শ্রমিক সংগঠনগুলির জোট (জি-স্কপ) এর নেতৃত্বে গার্মেন্টস শ্রমিকেরা নিম্নতম মজুরি ১৮০০০টাকা নির্ধারণ করার দাবিতে দীর্ঘদিন আন্দোলন করছে। সরকার গত ২ জুলাই তারিখে রাষ্ট্রীয় শিল্প প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের জন্য নিম্নতম মজুরি ঘোষণা করে যা ২০১৫ সাল থেকে কার্যকর হবে বলে সরকার সিদ্ধান্ত দেয়। গত ৩ বছরের ইনক্রিমেন্টসহ রাষ্ট্রিয় শিল্প প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের এই মজুরির বর্তমান পরিমাণ ১৭৮১২ টাকা। অর্থাৎ সরকারের মানদণ্ডেও  এটা প্রমাণিত যে একজন শ্রমিকের মানবিক জীবনযাপনের জন্য ন্যূনতম ১৮০০০ টাকা প্রয়োজন। কিন্ত সবকার মালিকদের চাপের কাছে নতি স্বীকার করে শ্রমিকদের দাবির সাথে প্রহসনমুলক মজুরি ঘোষণা করেছে।  সরকার ৮০০০ টাকার যে মজুরি ঘোষণা করেছে তার মধ্যে মুল মজুরি ৪১০০ টাকা। ২০১৩ সালে গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য ঘোষিত নিম্নতম মুল মজুরি ৩০০০ টাকা ৫ শতাংশ হারে বাৎসরিক বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে ৫ বছর পরে বিদ্যমান মুল মজুরি ৩৮২৮ টাকা। অর্থাৎ নতুন মজুরি ঘোষণায় শ্রমিকদের মুল মজুরি মাত্র ২৭২ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। যা প্রমাণ করে মজুরি বোর্ড শ্রম আইন‘২০০৬ এর ১৪১ নং ধারায় উল্লেখিত মানদন্ড কিংবা আই.এল.ও কনভেনশন ১৩১এর মজুরির মাপকাঠিকে কোন মূল্য দেয়নি। মজুরি বোর্ড মানদন্ড বিচারের পরিবর্তে দরকষাকষির স্থান হিসাবে ব্যবহত হয়েছে, যা আইন সম্মত নয়। দরকষাকষির ক্ষেত্রে সরকার মালিকদের প্রতি সহানুভুতিশীল আচরণ করে শ্রমিকদের বঞ্চিত করেছে। আর সরকার, এই ঘোষণার মাধ্যমে সমাজে বৈষম্য বৃদ্ধিকে উৎসাহিত করছে। নেতৃবৃন্দ মজুরির এই অন্যায্য ঘোষণা প্রত্যাখান করে বলেন শ্রমিকরা ২০১০ সালে ৮০০০টাকা নি¤œতম মজুরি ঘোষনার দাবি করেছিল অর্থাৎ সরকার লক্ষ লক্ষ শ্রমিকদেরকে বিগত ৮বছরের রাষ্ট্রীয় প্রবৃদ্ধির সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে অল্প সংখ্যক মালিকদের সম্পদের প্রবৃদ্ধিকে আরও ত্বরান্বিত করতে চায়। নেতৃবৃন্দ ঘোষিত মজুরি পুন:বিবেচনার মাধ্যমে রাষ্ট্রিয় শিল্প প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের মজুরির সাথে সংগতি রেখে গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য নি¤œতম মজুরি ১৮০০০ টাকা ভিত্তি ধরে মজুরি কাঠামো ঘোষণা করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।

নেতৃবৃন্দ আদমজী ইপিজেড এ অবস্থিত অবৈধবাবে বন্ধ বেকা গার্মেন্টস চালু ও শ্রমিকদের ১২ দফা মেনে নেয়ার আহ্বান জানান।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

সংগঠন সংবাদ -এর সর্বশেষ