৬ কার্তিক ১৪২৫, সোমবার ২২ অক্টোবর ২০১৮ , ৪:১১ পূর্বাহ্ণ

UMo

চাষাঢ়া শহীদ মিনারে ছাত্র ফ্রন্টের শিশু কিশোর মেলা


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৭:৪৮ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সোমবার


চাষাঢ়া শহীদ মিনারে ছাত্র ফ্রন্টের শিশু কিশোর মেলা

মহান শিক্ষা দিবস উপলক্ষে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে ২৪ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকাল ৪ টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে আলোচনা সভা অনুুষ্ঠিত হয়। এ সময় ছাত্র ফ্রন্টের আয়োজনে শহীদ মিনারে আরো অনুষ্ঠিত হয় শিশু কিশোর মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সুলতানা আক্তার।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসিরউদ্দিন প্রিন্স, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ফোরামের সদস্য আবু নাঈম খান বিপ্লব, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসাইন, সরকারি মহিলা কলেজ শাখার সভাপতি সানজিদা শান্ত, নারায়ণগঞ্জ কলেজের আহ্বায়ক রায়হান শরীফ, শিক্ষা দিবস উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব মাহফুজুর রহমান পর্বত।

নাসিরউদ্দিন প্রিন্স বলেন, ‘১৯৬২ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর পাকিস্থানি শাসকগোষ্ঠীর শিক্ষা সংকোচন নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে শহিদ হয়েছিল মোস্তফা, বাবুল, ওয়াজিউল্লাহসহ নাম না জানা অনেকে। তৎকালীন সরকার ছাত্র জনতার অভ্যূত্থানের মুখে শিক্ষানীতির বাস্তবায়ন স্থগিত ঘোষণা করে। বাংলাদেশের ছাত্র সমাজ প্রতি বছর এই দিনটিকে শিক্ষা দিবস হিসেবে পালন করে আসছে।’

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসিরউদ্দিন প্রিন্স বলেন, ‘বর্তমানে স্বাধীন দেশে এখনও মানুষের সর্বজনীন শিক্ষার আকাক্সক্ষা অপূরিত রয়ে গেছে। বর্তমানে গোটা শিক্ষাব্যবস্থার ৯৫ ভাগ পরিচালিত হচ্ছে বেসরকারি উদ্যোগে। ১৯ হাজার  মাধ্যমিক স্কুলের মধ্যে মাত্র ৩২৩ টি সরকারি, ২৮৯ টি মাত্র সরকারি কলেজ আর ১৪০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় মাত্র ৩৮ টি। এ সকল বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়তে প্রয়োজন প্রচুর অর্থ। অর্থাৎ গরীব মানুষের সন্তানদের পড়ানোর প্রয়োজন নেই, যার টাকা আছে, শিক্ষা কেনার সামর্থ্য আছে সেই পড়তে পাড়বে। একদিকে যেমন অবকাঠামোগত সংকট আবার অপরদিকে ধ্বংস করা হচ্ছে শিক্ষার মর্মবস্তু।’

আবু নাঈম খান বিপ্লব বলেন, ‘স্কুল শিক্ষার্থীদের পিইসি-জেএসসির মত অপ্রয়োজনীয় পাবলিক পরীক্ষা চাপিয়ে দিয়ে শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক বিকাশকে ব্যাহত করা হচ্ছে। এর সাথে যুক্ত হয়েছে প্রতিটি পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের ঘটনা। পাঠ্যপুস্তকে সাম্প্রদায়িক সংশোধনী এনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা-মূল্যবোধকে পদদলিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ একটি গুরুত্বপূর্ণ জেলা। এখানে প্রচুর ছাত্র-ছাত্রী উচ্চ শিক্ষায় সংকটগ্রস্থ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ন্তভূক্ত কলেজসমূহে পড়াশোনা করে। এগুলোতে হল-হোস্টেল নেই, পরিবহনে ব্যবস্থা নেই, পর্যাপ্ত শিক্ষক, ক্লাসরুম নেই। নারায়ণগঞ্জে একটি স্বায়ত্বশাসিত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা আজ সময়ের দাবি। নেতৃবৃন্দ শিক্ষা দিবসের চেতনায় শক্তিশালী ছাত্র আন্দোলন গড়ে তুলে শিক্ষার দাবি আদায়ের আহ্বান জানান।’

আলোচনা সভার পূর্বে বিভিন্ন দাবি সম্বলিত ফেস্টুন, ব্যানার নিয়ে সুসজ্জিত মিছিল এবং শহিদ মিনারে চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গণসংগীত পরিবেশন করে। সকাল থেকে সারাদিনব্যাপী শহিদ মিনারে আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভার পরে শিশু কিশোর মেলার উদ্যোগে আয়োজিত শিক্ষা দিবস নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশে প্রজেক্টারের মাধ্যমে বড় পর্দায় শিক্ষা দিবসকে কেন্দ্র করে একটি ডকুমেন্টারি দেখানোর মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

সংগঠন সংবাদ -এর সর্বশেষ