আলোচনায় ইকবাল পারভেজ, মনোনয়নে এগিয়ে বাবু

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:৫৪ পিএম, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার



আলোচনায় ইকবাল পারভেজ, মনোনয়নে এগিয়ে বাবু

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ইস্যুতে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ দলেও নানা সমীকরণ তৈরি হচ্ছে। এদিকে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে অনেকটা ফাঁকা মাঠে এগোচ্ছেন বর্তমান সাংসদ নজরুল ইসলাম বাবু। অন্যদিকে তার আসনে কেন্দ্রীয় যুবলীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইকবাল পারভেজ আলোচনায় থাকলে মনোনয়ন রেসে অনেকটা পিছিয়ে আছেন। এতে করে এই আসলে দ্বন্দ্ব কোন্দলের তেমন কিছু দেখা যাচ্ছেনা। যদি অন্তর্দ্বন্দ্ব রয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ও পুনরায় তফসিল ঘোষণার মধ্য দিয়ে নির্বাচনের সময় আগামী ৩০ ডিসেম্বর ধার্য করা হয়েছে। আর নির্বাচনী বছরের শুরু থেকেই আওয়ামীলীগ মনোনয়ন প্রত্যাশীরা বেশ সরব হয়ে মাঠে নামে। আর মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে কোন ধরনের প্রকাশ্য দ্বন্দ্ব থাকলেও তা এখন দৃশ্যমান হচ্ছেনা। তবে অন্তর্দ্বন্দ্ব ঠিকই রয়েছে। এই আসনে হেভিওয়েট আওয়ামীলীগের মনোনয়ন তালিকাতে থাকা এই দুজন নেতা ইতোমধ্যে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।

নারায়ণগঞ্জ-২ আড়াইহাজার আসনের সাংসদ নজরুল ইসলাম বাবু গত দুই দফায় ৮ বছর যাবত ক্ষমতায় আছেন। ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা বাবু আড়াইহাজারে বেশ নিরব কৌশলে নিজ দায়িত্ব পালন কছেন। আর সকল রকম সমালোচনা ও বিতর্কের ঊর্ধ্বে থেকে এই নেতা পথ চলেছেন। এতে করে মনোনয়ন ইস্যুতে তাকে কোন বেগ পেতে হবেনা।

এর আগে দেশের প্রথম সারির জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠের একটি সংবাদে মনোনয়নের চূড়ান্ত তালিকায় ৬৭ জন সাংসদের নাম উল্লেখ্য করে গত ১২ সেপ্টেম্বর একটি সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। আর সেই সংবাদে বলা হচ্ছে, ‘৬৭ জনের তালিকাতে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে শামীম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে নজরুল ইসলাম বাবুর নাম রয়েছে।

ক্ষমতাসীন দলের একাধিক প্রভাবশালী নেতা জানান, আগামী নির্বাচনে শতাধিক আসনে প্রার্থী হিসেবে যাঁদের নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে তাঁদের মনোনয়ন বিএনপি নির্বাচনে এলেও পরিবর্তন হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। বিএনপি নির্বাচন করবে ধরে নিয়েই এই তালিকা করা হয়েছে।

এররপর থেকে সাংসদ বাবু আরো অনেকটা ফুরফুরে মেজামে এগিয়ে চলছেন। এর মধ্যে মনোনয়ন প্রপ্তিতেও তার শতভাগ আত্মবিশ্বাস দেখা গেছে। সম্প্রতি মনোনয়ন পত্র দাখিল করা এই নেতা তার নিজ আসনে মাঠ ফাঁকা জেনেই কাজ করছেন। এতে করে আত্মবিশ্বাসী এই নেতা অনেকটা আটঘাট বেধেই মাঠে নেমেছেন। কারণ কোনভাবেই যেন মনোনয়ন ফসকে না যায়।

অন্যদিকে কেন্দ্রীয় যুবলীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইকবাল পারভেজ এই আসনের হেভিওয়েট মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকায় থাকলে তেমন তোড়জোড় দেখা যাচ্ছেনা। তাছাড়া এই নেতা বিগত দিনে দলীয় কর্মসূচিতেও তেমন সক্রিয় দেখা যায়নি। এমনকি নিজ আসনেও তার তেমন কোন প্রভাব নেই বললেই চলে। সবচেয়ে বড় বিষয় হল রাজনীতিকে কোন ধরনের চমক দেখাতে পারেনি এই নেতা। যেকারণে মনোনয়ন রেসে প্রতিযোগিতার আগেই মুখ থুবড়ে পড়তে হবে এই নেতাকে। যদিও কেন্দ্রের পদ পদবী রয়েছে। তবে পদ পদীব থাকা আর একই আসনে জাতীয় নির্বাচনে জনপ্রতিনিধি হওয়ার মধ্য বিশাল ফারাক রয়েছে। যেকারণে এই নেতাকে মনোনয়ন ইস্যুতে শুধুমাত্র আলোচনায় রয়েছে।

একাধিক সূত্র বলছে, ‘নারায়ণগঞ্জ-২ আসনটিতে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে সাংসদ নজরুল ইসলাম বাবু বেশ এগিয়ে আছে। শুধুমাত্র এই আসনেই নয় কেন্দ্রেও তার বেশ প্রভাব রয়েছে। যেকারণে এই নেতা মনোনয়ন রেসে অনেকটা এগিয়ে আছে। অন্যদিকে ইকবাল পারভেজ একদিকে ছিল রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় । নামেমাত্র পদ নিয়ে বসে ছিলেন। এমনকি তার আসনে কোন চমক দেখাতে পারেনি। কখনো আলোচনায়ও উঠে আসতে পারেনি। এতে করে এই নেতার পক্ষে মনোনয়ন সিগ্যান যাওয়ার কোন সম্ভাবনাই দেখা যাচ্ছেনা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ‘আড়াইহাজারের সাংসদ নজরুল ইসলাম বাবু সরাসরি ওসমান বলয়ের সাথে রয়েছে। তাছাড়া বিগত দিনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পদবীধারী এই নেতার কেন্দ্রেও বেশ প্রভাব রয়েছে। আর নিজ আসনেও তেমন কোন বিতর্কিত কাজের সাথে তিনি নিজে কখনো জড়ায়নি। যেকারণে এই নেতা মনোনয়ন ইস্যুতে পথ অনেকটাই সুগম রয়েছে। অন্যদিকে ইকবাল পারভেজ কোন মেরুর নিজেকে জড়ায়নি। আর রাজনীতিতেও কোন চমক দেখাতে পারেনি। যেকারণে তার মনোনয়ন পত্র দাখিল শুধুমাত্র আলোচনায় উঠে আসা মাত্র।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও