গণতান্ত্রিক দেশের গণমাধ্যমকে দুর্বল দেখতে চাই না

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৩:৩২ পিএম, ২ জুন ২০২০ মঙ্গলবার

গণতান্ত্রিক দেশের গণমাধ্যমকে দুর্বল দেখতে চাই না

নারায়ণগঞ্জের বন্ধ হওয়া ৫ টি অনলাইন নিউজ পোর্টাল খুলে দেয়ার জোর দাবী জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

২ জুন মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় আলী আহম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার ও মিলনায়তনের সামনে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে এই দাবী জানানো হয়।

নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ভবানী সংকর রায়ের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহবায়ক বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বী, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক হিমাংশু সাহা, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, সমমনার সভাপতি দুলাল সাহা, জেলা বাসদের সমন্বয়ক নিখিল দাস, জেলা গণসংহতি আন্দোলনের সভাপতি তরিকুল সুজন প্রমুখ।

মানববন্ধনে উপস্থিত থাকা প্রত্যেকের মুখেই একই বক্তব্য ছিল সেটা হলো যেন অতিদ্রুত নারায়ণগঞ্জের ৫টি অনলাইন খুলে দেয়া হয়। অন্যথায় নারায়ণগঞ্জবাসীকে নিয়ে আন্দোলন করা হবে বলে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

মানববন্ধনে বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বী বলেন, ‘আমরা বলব না যে নারায়ণগঞ্জের যে সমস্ত সংবাদপত্র রয়েছে, সে সমস্ত সংবাদপত্র বা নিউজ পোর্টাল সবাই বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করে। আমরা দেখেছি নারায়ণগঞ্জে হলুদ সাংবাদিকতাও বিদ্যমান। আমরা এর নিন্দা জানাই, প্রতিবাদ জানাই। কিন্তু একটি দুটি সংবাদকে উল্লেখ করে সকল সংবাদ পত্রের টুটি চেপে ধরার ঘোরতর বিরোধী। আজ এরা এই সাহস পাচ্ছে কারণ আমরা জানি সারাদেশে সরকার গণমানুষের বাক স্বাধীনতা হরণের চেষ্টা করছে। যদি জনগণের বাক স্বাধীনতা টিকিয়ে রাখার পক্ষে সরকার থাকতো তাহলে কোনো গডফাদারদের ইঙ্গিতে বা নির্দেশে সিদ্ধান্ত সরকার নিতে পারে না।

রাব্বী বলেন, ‘আমরা যখন বললাম যে ঘোষণা ছাড়া পোর্টাল বন্ধ হয় ব্লকড দেখানো হচ্ছে যার কোনো কারণ নাই। তখন ডিসিকে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হয়। তিনি বলেন এমন কোনো নির্দেশনা তিনি দেননি। অথচ আমরা আবার দেখি গত ২৮ তারিখে (২৮ মে) জেলা প্রশাসন থেকে নিউজ নারায়ণগঞ্জকে একটা নোটিশ তারা সরবরাহ করেছে। যেটাতে তারা উল্লেখ করেছে, গত ১৪ তারিখে নারায়ণগঞ্জের ৩০০ শয্যা হাসপাতাল কেন্দ্রীক একটি প্রতিবেদন করা হয়েছে; এটি সঠিক নয়, অসত্য। এবং ৭ দিনের মধ্যে এর জবাব দেয়ার কথা বলা হয়েছে। নয়তো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

‘এখন এর মধ্য দিয়ে কিছু প্রশ্ন উঠে আসে। যেমন, নিউজ পোর্টালগুলো বন্ধ হলো ১৪ তারিখ, অথচ ডিসি অফিস থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে তারও ১৪ দিন পর। তাছাড়া ওই চিঠিতে যেই ৭ দিনের কথা বলা হয়েছে, ওই ৭ দিন এখনো শেষ হয় নাই। সংবাদ মাধ্যম বন্ধ করা এবং তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার তো একটি প্রক্রিয়া আছে।’

রাব্বী বলেন, ‘আমরা এই নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালের অনিয়ম দীর্ঘ দিন ধরে আমরা দেখে আসছি, এখনো পর্যন্ত তা বলবৎ রয়েছে। কিন্তু নিউজ নারায়ণগঞ্জের সংবাদটি যদি অসত্য হয়ে থাকে, বানানো হয়ে থাকে, তাহলে সেই বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার একট প্রক্রিয়া রয়েছে। কিন্তু নোটিশ দেয়ার ১৪ দিন আগে বন্ধ করে দেয়া, এটা কোনভাবেই যুক্তিযুক্ত হতে পারে না। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, যদি নিউজ নারায়ণগঞ্জের সংবাদটি অসত্য হয়ে থাকে তবে অন্য পোর্টালগুলো কেন বন্ধ করা হয়েছে? এগুলো বন্ধ করার কারণ কি, এর জবাব আমরা চাইবো।’

‘আমরা যে বিষয়টি লক্ষ করেছি, গত ১৪ তারিখ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে নারায়ণগঞ্জের তিনজন সাংসদ সভা করলেন। এবং তারা সেখানে এই অনলাইন পোর্টালগুলো সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এবং সেদিন থেকেই এই পোর্টালগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়। কোন সংসদ সদস্য তিনজন? যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস সহ অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। ইতোমধ্যে তারা নারায়ণগঞ্জে বহু সংবাদপত্র বন্ধ করার তৎপরতা চালিয়েছে এবং বন্ধও করেছে। এই সংবাদ মাধ্যমগুলোতে তাদের সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি সহ বহু অপরাধের প্রতিবেদন করা হয়। ফলে এই সংবাদ মাধ্যমগুলোর উপরে তারা বহুদিন ধরে ক্ষুব্ধ ছিলেন।’

‘এখন প্রশ্ন হচ্ছে, জেলা প্রশাসক জনপ্রতিনিধিদের কথায় এমন ব্যবস্থা গ্রহষ করতে পারে কিনা? আমরা তাকে আহবন করবো, এই পোর্টালগুলো যাতে দ্রুত খুলে দেয়ার ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। কারণ, আপনার অফিস থেকে লিখিত বা মৌখিক কোনো নির্দেশনা না গেলে এই পোর্টালগুলো বন্ধ হওয়ার কথা নয়। এই মানববন্ধনে দাড়িয়ে আমরা দাবী জানাই, দুর্বৃত্ত সাংসদদের দিকে না তাকিয়ে আমাদের জনগণের কল্যানের কথা চিন্তা করুন। কারণ আপনি জেলা প্রশাসক, জনগণের প্রতি আপনারও দায়িত্ব রয়েছে।’

রাব্বী আরো বলেন, ‘আমি আরও একটি বিষয়ে বলতে চাই। নারায়ণগঞ্জে ডজন খানেকের মতো সাংবাদিকদের সংগঠন রয়েছে। আজকে ১৯/২০ দিন হলো এই পোর্টালগুলো বন্ধ। অথচ কাউকে দেখিনি এর প্রতিবাদ জানাতে, প্রতিবাদ জানিয়ে রাস্তায় নামেনি, এগিয়ে আসেনি কেউ। প্রশ্ন করতে চাই, সাংবাদিকদের সংগঠন কেন করা হয়? এর উদ্দেশ্যটা কি? এই প্রশ্নগুলো আমাদের সামনে চলে আসে আজকের এই বাস্তবতায়। আমরা এই কারণে প্রশ্নগুলো করতে পারি কারণ, যখন আমরা দেখি এই দুর্বৃত্তদের টাকা পয়সায় নারায়ণগঞ্জে সংবাদপত্র প্রকাশিত হয়, তাদের সাথে অনেক সাংবাদিকদেরই সখ্যতা আছে। আমি বলব, সংবাদপত্রের কথা বিবেচনা করে, সাংবাদিকদের কথা বিবেচনা করে ঐক্যবদ্ধভাবে উক্ত সংবাদপত্রের পাশে আপনারা দাঁড়াবেন, এটি আমাদের আকাঙ্খা।’

তিনি বলেন, ‘আমরা স্মরণ করিয়ে দিতে চাই; এই যে ট্রাম্প এতো ভোট পেয়ে নির্বাচিত হলো, গতকাল তার কি হলো? সমস্ত মানুষ যখন হোয়াইট হাউজ ঘেরাও করলো তখন তিনি গর্তে লুকিয়েছে তার জীবন রক্ষার্থে। শুধু আমেরিকায় নয়, সারা বিশ্বে বহুবার এমন ঘটনা ঘটেছে। যারা ক্ষমতায় আছে তারা এটি চিরস্থায়ী যদি মনে করেন তবে ভুল করবেন। সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ক্ষুন্ন যদি হয় তাহলে আমাদের সংবিধানের একটি গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ দুর্বল হয়ে পরবে। আমরা এই স্তম্ভ দুর্বল দেখতে চাই না। আমরা সঠিক সংবাদের মধ্য দিয়ে আমরা দেশের প্রকৃত চিত্র আমরা দেখতে চাই। সরকারের ভিতরের বাহিরের সকল চিত্র উন্মোচিত হোক সেটি আমরা দেখতে চাই। এই আশা রেখেই আমরা আবারও জেরা প্রশাসককে বলবো অতি দ্রæত এবং অবিলম্বে এই পোর্টালগুলো যাতে উন্মুক্ত করে দেয়া হয়।’

সভাপতির বক্তব্যে ভবানী শংকর রায় বলেন, সাংবাদিকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি জনগণের কাছে তুলে ধরছে। আর তাদেরকেই দমিয়ে দেয়া হচ্ছে যা কাম্য না। আমরা সাংবাদিকদের পাশে আছি এবং থাকবো।

জেলা ওয়ার্কাস পার্টির সাধারণ সম্পাদক হিমাংশু সাহা বলেন, অবিলম্বে নারায়ণগঞ্জের ৫টি অনলাইন যেন খুলে দেয়া হয়। এই সংবাদ মাধ্যমগুলো নারায়ণগঞ্জের জনপ্রিয় অনলাইন। তারা জনগণের কথা বলে দেশের কথা বলে।

জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলার ৫টি অনলাইন খুলে দেয়া না হলে আমরা প্রতিবাদ করবো। আমরা সাংবাদিকদের পাশে আছি। অতিদ্রুত যেন জেলার ৫ টি অনলাইন খুলে দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, কোনো রকমের ঘোষণা ছাড়াই বিগত ১৮ দিন ধরে নারায়ণগঞ্জের ৫টি নিউজ পোর্টাল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে নিউজ নারায়ণগঞ্জ২৪ ডটনেট, যুগের চিন্তার ডটকম, প্রেস নারায়ণগঞ্জ ডটকম, নারায়ণগঞ্জ টুডে ও সময় নারায়ণগঞ্জ। তবে এসব পোর্টাল বন্ধের ব্যাপারে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) কাউকেই নোটিশ বা জ্ঞাত করা হয়নি।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও