১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, শুক্রবার ২৫ মে ২০১৮ , ৫:০৬ অপরাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জে পুলিশের অস্ত্র লুটের মামলার আসামী ক্রসফায়ারে নিহত


স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৩:৫০ এএম, ১৬ মে ২০১৮ বুধবার | আপডেট: ০৮:৩৬ পিএম, ১৬ মে ২০১৮ বুধবার


নারায়ণগঞ্জে পুলিশের অস্ত্র লুটের মামলার আসামী ক্রসফায়ারে নিহত

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় পুলিশের একটি অস্ত্র খোয়া ও পরে সেটা উদ্ধারের ঘটনার মামলার আসামী ক্রসফায়ারে মারা গেছে। ছিনতাইকারী দুই গ্রুপের গোলাগুলির সময়ে পুলিশ সেখানে উপস্থিত হলে ত্রিপক্ষীয় গোলাগুলিতে ক্রসফায়ারে পরে ওই আসামী মারা যায়। ঘটনাস্থল থেকে ২ রাউন্ড গুলিভর্তি একটি রিভলবার ও ৩টা বড় ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে।

১৫ মে মঙ্গলবার দিনগত রাত ২টায় দাপা আলামিন নগর এলাকায় ওই ঘটনায় নিহতের নাম পারভেজ (৩০)। সে ফতুল্লার দাপা পাইলট স্কুল এলাকার সোবহান মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, ১৩ মে রোববার রাতে এএসআই সুমন কুমার পালের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ফতুল্লা রেলস্টেশন রোড এলাকার একটি বালুর মাঠে ডিউটিরত অবস্থায় ছিলেন। গভীর রাতে কনস্টেবল সোহেল রানার সঙ্গে থাকা একটি চাইনিজ রাইফেল খোয়া যায়। পরদিন ১৪ মে সোমবার সকাল ১১টায় ফতুল্লার দাপা বালুর মাঠের পাশের একটি ডোবার পাশ থেকে রাইফেলটি উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানার এএসআই সুমন কুমার পাল, তিনজন কনস্টেবল মাসুদ রানা, আরিফ ও সোহেল রানাকে দায়িত্বে অবহেলার জন্য সাময়িক প্রত্যাহার করা হয়।

ওই ঘটনায় পরে সুমন পাল বাদী হয়ে পারভেজ সহ ৩জনকে আসামী করে সোমবার রাতেই ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করে। এতে অভিযোগ করা হয় পারভেজ ওই অস্ত্রটি লুট করেছিল।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, মঙ্গলবার রাত ২টায় আলামিন এলাকাতে ছিনতাইকারীদের দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির খবর পায়। ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের একটি টিম সেখানে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে পারভেজ ক্রসফায়ারে পরে মারা যায়। পারভেজ পুলিশের সোর্স হিসেবেই এলাকাতে পরিচিত।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক মজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শহরের বাইরে -এর সর্বশেষ