৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, বুধবার ২১ নভেম্বর ২০১৮ , ১২:৩৯ অপরাহ্ণ

rabbhaban

৫ পোশাক কারখানার শ্রমিকদের বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:২১ পিএম, ২৪ জুন ২০১৮ রবিবার


৫ পোশাক কারখানার শ্রমিকদের বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ

ঈদের বকেয়া বোনাস পরিশোধ, শ্রমিক ছাঁটাই ও নির্যাতন বন্ধের দাবিতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ৫টি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে। এসব দাবীতে শ্রমিকেরা ২৪ জুন রোববার সকাল সাড়ে দশটা থেকে এগারোটা পর্যন্ত আধ ঘন্টা ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে পুলিশের আশ্বাসে শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ তুলে নিয়ে ফতুল্লার ডিআইটি মাঠে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এসময় রাস্তার দুই পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

পুলিশ ও শ্রমিকেরা জানায়, রোববার সকালে ফতুল্লার শিবুমার্কেট এলাকার সাকুরা গার্মেন্টসের এক শ্রমিককে মালিকপক্ষের লোকজন মারধর করে। এর প্রতিবাদে শ্রমিকেরা কাজ বন্ধ করে দিয়ে রাস্তায় নেমে আসে। পরে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় একই এলাকার ওসমান, র‌্যাডিকেল, ইরান ও আবির গার্মেন্টের কয়েক হাজার শ্রমিক। তারা একত্রিত হয়ে বকেয়া ঈদ বোনাস প্রদান এবং শ্রমিক ছাটাই ও নির্যাতন বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ করতে করতে ফতুল্লা থানার সামনে এসে প্রায় আধ ঘণ্টা ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে অবরোধ সৃষ্টি করে। পরে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের দাবী পূরণের ব্যাপারে আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেয়। পরে শ্রমিকরা রাস্তার পাশের ডিআইটি মাঠে অবস্থান নিয়ে চার গামের্ন্টের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ প্রদান করে।

সাকুরা গামেন্টের শ্রমিক আবুল কালাম ও সাত্তার মিয়া জানান, ঈদের আগে রাত দিন টানা কাজ করার পর গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষ তাদের পুরো বোনাস প্রদান না করে আংশিক বোনাস দেয়। ঈদের ছুটির পর কাজে যোগ দিয়ে বাকি বোনাস দাবি করার কারনে এক শ্রমিককে মারধর করে মালিক পক্ষের লোকজন। তাদের দাবি কোন অনিয়মের প্রতিবাদ করলেই তাদের প্রায় মারধর ও চাকরিচ্যুত করা হয়।

গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়নের নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি এম এ শাহীন জানান, আমরা গার্মেন্ট মালিক শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছি। আশা করি দ্রুতই শ্রমিকদের কাজে ফিরিয়ে নিতে পারবো।

বিকেএমইএ’র পরিচালক ও শ্রমিক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য জিএম ফারুক জানান, ঈদের মধ্যে শ্রমিকেরা ৭ দিনের ছুটি পেয়েছে। কোন কোন কারখানা ১০ দিন বা তার বেশীও বন্ধ ছিল। কিন্তু কারখানা খোলার পরে বেশ কিছু কারখানার শ্রমিকরা সময়মতো কারখানায় আসেনি। যে কারণে মালিকপক্ষ তাদেরকে ছাটাই করতে বাধ্য হয়েছে। তবে আমরা বিষয়টি সতর্কতার সঙ্গে দেখছি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, শ্রমিকদের লিখিত অভিযোগ গ্রহন করেছি। তাদের অভিযোগের ব্যাপারে বিকেএমইএ’র সভাপতি ও গার্মেন্ট মালিকদের সঙ্গে কথা হয়েছে। রোববার ওই এলাকার সকল গার্মেন্টস ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার শ্রমিকরা যথারীতি কাজে যোগ দিবে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শহরের বাইরে -এর সর্বশেষ