৩ দোকানে ডাকাতি দুই নৈশ প্রহরী খুন : পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ

৫ ভাদ্র ১৪২৫, সোমবার ২০ আগস্ট ২০১৮ , ৮:২৪ অপরাহ্ণ

৩ দোকানে ডাকাতি দুই নৈশ প্রহরী খুন : পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৩৫ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০২:৩৫ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৮ শনিবার


৩ দোকানে ডাকাতি দুই নৈশ প্রহরী খুন : পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার লক্ষলখোলায় একটি মার্কেটের দুইজন নৈশ প্রহরী খুন হয়েছে। ওই মার্কেটের তিনটি দোকান থেকে লুট হয়েছে প্রায় ২৭ লাখ টাকার মালামাল। পুলিশের ধারণা সংঘবদ্ধ সশস্ত্র ডাকাত দল এ ঘটনায় জড়িত। ডাকাতি কাজে বাধা দেওয়ায় কিংবা দুইজনকে হত্যার পর ডাকাত দল এসব মালামাল লুট করে।

গতকাল শনিবার ভোরে ওই দুইজন নৈশ প্রহরীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ১০০ শয্যা বিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন বন্দর উপজেলার উত্তর লক্ষনখোলার মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে রায়হান মিয়া (৬৫) ও উপজেলার চৌরাপাড়া এলাকার মৃত হাবিব মিয়া ছেলে মোতালেব হোসেন (৫৫)।

বন্দর থানার ওসি শাহিন মন্ডল জানান, শুক্রবার রাত থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত কোন এক সময়ে অজ্ঞাত পরিচয় সশস্ত্র ডাকাত দল লক্ষণখোলা মাদ্রাসা মার্কেটে হানা দেয়। ওই মার্কেটের বিসমিল্লাহ ব্যাটারি স্টোর, সততা মেলা ব্যাটারি ও সততা ব্যাটারি সার্ভিসিং সেন্টার দোকান মালিকদের অভিযোগ তালা ভেঙে তাদের দোকান হতে প্রায় ২৭ লাখ টাকার মালামাল লুট করা হয়েছে। ভোরে মার্কেটের দুইজন নৈশ প্রহরীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের ভারী লোহার দেশীর অস্ত্র দিয়ে মাথায় ও দেহের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ডাকাতি কাজে বাধে কিংবা দুইজনকে হত্যার পরেই ডাকাত দল এসব দোকান হতে মালামাল লুট করে। ডাকাত দল ও মালামাল উদ্ধারে পুলিশের অভিযান শুরু হয়েছে।

এদিকে নিহত দুই নৈশ প্রহরীর বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিকরা ও নিহতদের পরিবারসহ স্থানীয় এলাকাবাসী এ ঘটনার জন্য পুলিশের কর্তব্যে অবহেলাকে দায়ী করে এর সুষ্ঠু বিচার দাবী করছেন। পুলিশের ভূমিকায় প্রশ্ন তুলেছেন তারা। তবে পুলিশ বলছে, সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করে ডাকাতদের শনাক্ত করে তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

অতিরিক্ত ডিআইজি আবুল কালাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সহ জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করতে জেলা পুলিশের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বন্দর এলাকার ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: এনায়েত হোসেন অভিযোগ করেন, রাতে টহল পুলিশের কোন নজরদারি না থাকায় ঢাকা-মদনগঞ্জ সড়কের মদনপুর থেকে মদনগঞ্জ পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে ইতিপূর্বে বেশ কয়েকবার ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। তবে পুলিশ প্রশাসন এ ব্যাপারে গুরুত্ব না দেয়ায় নিয়মিত চুরি ডাকাতিসহ নানা ধরণের অপরাধমূলক ঘটনা ঘটে চলছে। সর্বশেষ এলাকার দুই বৃদ্ধ নৈশ প্রহরীকে প্রাণ দিতে হয়েছে। তিনি প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শহরের বাইরে -এর সর্বশেষ