৬ কার্তিক ১৪২৫, সোমবার ২২ অক্টোবর ২০১৮ , ৪:১২ পূর্বাহ্ণ

UMo

চাঁদা না দেয়ায় পুত্রকে মারধর, পিতাকে ছুরিকাঘাত


বন্দর করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:২০ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রবিবার


চাঁদা না দেয়ায় পুত্রকে মারধর, পিতাকে ছুরিকাঘাত

নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলায় চাঁদা না দেয়ায় এক অটোরিকশা ( ইজিবাইক) চালককে ছুরিকাঘাত করেছে সন্ত্রাসীরা। পুত্রকে বাঁচাতে গিয়ে ছুরিকাহত হন অটোরিকশা চালক পিতা শফিকুল ইসলাম(৪৫)।  তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় লাউসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
 
জানা গেছে, লাউসার-মদনপুর  স্ট্যান্ড সড়কে চলাচলরত অটোরিকশা থেকে চাঁদা উত্তোলন করে আসছে একটি সন্ত্রাসী চক্র। প্রতিদিনের চাঁদা পরিশোধ না করায় আহত শফিকুলের ছেলে রাসেলকে ধরে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। ছেলেকে মারধর থেকে বাঁচাতে গিয়ে পিতা শফিকুলকে ছুরিকাহত হন বলে গ্রামবাসী জানিয়েছে।  
 
স্থানীয় মসজিদ কমিটির সভাপতি গোলাম মোস্তফা জানান, লাউসার গ্রামের জনসাধারণের জন্য মদনপুর পর্যন্ত প্রায় ৭০টি অটোরিকশা চলাচল করে। এই অটোরিকশা থেকে একই গ্রামের আলী আকবরের ছেলে উজ্জলসহ একটি সিন্ডিকেট প্রতিদিন প্রতি অটোরিকশা বাবদ ৫০ টাকা চাঁদা আদায় করে। একদিনের চাঁদার টাকা পরিশোধ না করায় শনিবার সন্ধ্যায় শফিকুল ইসলামের ছেলে রাসেলকে উজ্জল ও তার সহযোগীরা তুলে নিয়ে মারধর শুরু করে। ছেলেকে তুলে নিয়ে মারধরের খবর পেয়ে ছুটে যায় পিতা শফিকুল ইসলাম। এসময় শফিকুল তার ছেলেকে মারধরের প্রতিবাদ করে। এতে উজ্জল ক্ষিপ্ত হয়ে  পিতা শফিকুলকে ছুরিকাঘাত  করে। পরে শফিকুলকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে সে আইসিইউতে লাইফসাপোর্টে রয়েছে। এ খবর পেয়ে বন্দর থানার এসআই সাখাওয়াত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। গ্রামবাসী জানান, শফিকুল ইসলাম ও তার  ছেলে রাসেল  পিতাপুত্র দুইজন অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। 
 
এসআই সাখাওয়াত হোসেন জানান, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা প্রমানিত হয়েছে। উজ্জলসহ অভিযুক্তরা এলাকার চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ীও। মামলার প্রস্তুতি চলছে। 

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শহরের বাইরে -এর সর্বশেষ