পাগলার বহুল আলোচিত টেনু গাজী আটক

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:০২ পিএম, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার

পাগলার বহুল আলোচিত টেনু গাজী আটক

নারায়ণগঞ্জে পাগলায় প্যারাগন মাল্টিপারপাস প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও কর্মকর্তাদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে ব্যবসায়ী বহুমুখি সমিতির সভাপতি শাহ আলম টেনু গাজী গংদের বিরুদ্ধে। এর পাশাপাশি অর্থ আত্মসাৎ ও চাঁদাবাজির অভিযোগও রয়েছে। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ ডিবির একটি টিম সন্ধ্যায় পাগলা এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে।

৭ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার রাতে ফতুল্লা মডেল থানা প্যারাগন মাল্টিপারপাসের চেয়ারম্যান মোঃ শাহজাহান অভিযোগ দায়ের করেন।

বিবাদীরা হল,  পাগলা বাজার এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে ও পাগলা বাজার ব্যবসায়ী বহুমুখি সমিতির সভাপতি শাহআলম গাজী টেনু (৫৫) ও মোঃ বাচ্চু (৪৮) এবং পাগলা বৈরাগী বাজার এলাকার মো. আজাদের স্ত্রী লিমা (৩০) সহ অজ্ঞাত ৮-১০ জন।

অভিযোগে তিনি বলেন, ‘৩নং বিবাদী অর্থাৎ লিমা বেগম প্রায় ৭ মাস পূর্বে আমাদের প্রতিষ্ঠানের পাগলা শাখা অফিস হইতে ২৪ হাজার টাকা লোন গ্রহণ করে। কিন্তু ৩নং বিবাদী নিয়মিত লোনের টাকা পরিশোধ না করে উপরন্ত আমাদের বিভিন্ন ভাবে ঘুরাইতে থাকে। এ বিষয়ে ৩নং বিবাদীর বিরুদ্ধে আমাদের প্রতিষ্ঠানের পাগলা শাখার ম্যানেজার ফারুক ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিল। এমতাবস্থায় ৩নং বিবাদী ১ ও ২নং বিবাদীর শরনাপন্ন হয়।

ইতোমধ্যে ১ ও ২নং বিবাদী আমাদের কাছে বেশ কিছুদিন যাবত অযৌক্তিক ভাবে ৫লাখ  টাকা চাঁদা দাবী করিয়া আসিতেছিল। এমতাবস্থায় ১ ও ২নং বিবাদী ৩নং বিবাদীর লোন সংক্রান্ত বিষয়ের সমাধানের জন্য ৭ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগণ এবং ৩নং বিবাদীকে পাগলা বাজার সমবায় সমিতির অফিসে উপস্থিত থাকার জন্য বলেন। সেই তারিখ সন্ধ্যা অনুমান সাড়ে ৬ টায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও কাজল কুমার রায়, সিইও এর বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় এবং সিইও এর মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায় পাগলা বাজার সমবায় সমিতির অফিসে গেলে ১ ও ২নং বিবাদী পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী কৌশলে অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক দ্বারা আমাদের প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের ১নং বিবাদীর বাড়ীতে নিয়া যায়।

একপর্যায়ে উক্ত ঘটনার কোন সমাধান না করিয়া ১ ও ২নং বিবাদী পুনরায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও কাজল কুমার রায় এর নিকট হতে উক্ত ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় ১নং বিবাদীর নির্দেশে ২নং বিবাদী সহ অজ্ঞাতনামা ৫থেকে ৬ জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক তাদের হত্যার উদ্দেশ্যে লোহার রড ও লাঠি-সোটা দ্বারা এলোপাথারী ভাবে মারধর করিতে থাকে। ১নং বিবাদী হাতে থাকা লোহার রড দ্বারা সিইও কাজল কুমার রায়কে হত্যার উদ্দেশ্যে স্বজোরে মাথায় আঘাত করলে মাথা ফাটিয়া গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়।

এসময় ২নং বিবাদী সিইও কাজল কুমার রায় এর সাথে থাকা নগদ ২০ হাজার টাকা ও ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের ১টি মোবাইল ফোন জোরপূর্বক নিয়ে নেয়। এছাড়া সিইও এর বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় ও তার মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায়কেও পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর নীলা-ফুলা জখম করে। এর একপর্যায়ে বিধান কৃষ্ণ রায় এর নিকটে থাকা নগদ ২৫ হাজার  টাকা ও বিপ্লব চন্দ্র রায় এর নিকট হতে নগদ ১০ হাজার টাকা জোরপূর্বক নিয়ে নেয়।

সংবাদ পেয়ে ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশ ১নং বিবাদীর বাড়ীতে উপস্থিত হয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও এবং তাহার দুই ভাইকে গুরুতর রক্তাক্ত ও অবরুদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে। আহতদের মধ্যে কাজল কুমার রায় ও বিপ্লব কুমার রায়কে নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) নূরে আলম জানান, টেনু গাজীকে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ আটক করেছে। অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও