রূপগঞ্জে চেয়ারম্যানকে গুলি করেও তাওলাদ বাহিনী ধরাছোঁয়ার বাইরে

রূপগঞ্জ করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৫:২৩ পিএম, ২১ মার্চ ২০১৯ বৃহস্পতিবার

রূপগঞ্জে চেয়ারম্যানকে গুলি করেও তাওলাদ বাহিনী ধরাছোঁয়ার বাইরে

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছসহ তার পরিবারের সদস্যদের হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করার ঘটনায় মামলা হলেও অপরাধীরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে।

এক সপ্তাহ পূর্বে গুলির ঘটনার পর চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় বাদী হয়ে মাদক ব্যবসায়ী তাওলাদসহ তার বাহিনীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তবে এখন পর্যন্ত আসামীদের গ্রেফতার করা হয়নি।

ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছ জানান, মাছিমপুর এলাকার জামাইল তাওলাদসহ এই বাহিনীর সদস্য ব্রাম্মনগাঁও এলাকার মোহাম্মদ আলী, রিয়াজ, মাছিমপুরের আব্দুর রশিদ, হানিফ, লেদা ফারুক, ইকবাল, আলামিন, লতিফ, বাবু, গোলজার দীর্ঘ দিন ধরে এলাকায় বিভিন্ন ধরণের মাদক বিক্রিসহ অপরাধমুলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে। এ ব্যপারে চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছ সব সময় প্রতিবাদ করে আসছেন। যার ধারাবাহিকতায় গত ১৪ মার্চ রাতে তাওলাদসহ তার বাহিনীর সদস্যরা রামদা, চাপাতি, পিস্তল, বন্দুক, ককটেলসহ অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে পরিকল্পিতভাবে তার নিজ বাড়িতে প্রবেশ করে চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছসহ পরিবারের সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এসময় গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে তারা প্রাণে বেঁচে যায়। পরে তিনিসহ পরিবারের সদস্যরা দৌঁড়ে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করেন। এক পর্যায়ে দিলু ও রাজু নামের দুই জনকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, তাওলাদ বাহিনীর বিরুদ্ধে রূপগঞ্জসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। একের পর এক অপরাধমূলক কর্মকা- করে আসলেও তাদের গ্রেফতার করছেনা পুলিশ প্রশাসন।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও