বন্দরে প্রবাসী স্বামীর অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে স্ত্রীর পলায়ন

বন্দর করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:৫১ পিএম, ১৭ মে ২০১৯ শুক্রবার

বন্দরে প্রবাসী স্বামীর অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে স্ত্রীর পলায়ন

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে সম্পত্তি লিখে না দেওয়ার জের ধরে প্রবাসী স্বামীর জমানো অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে গৃহবধূ সনিয়া আক্তার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় স্বামী মুছলিম খান বাদী হয়ে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

জানা গেছে, ৫ বছর পূর্বে পশ্চিম হাজীপুর এলাকার মৃত ইসমাঈল মিয়ার ছেলে সৌদিআরব প্রবাসী হাজী মুছলিম খানের সাথে ফরাজিকান্দা এলাকার আব্দুর রহমান মিয়ার মেয়ে সনিয়া আক্তারে সাথে ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী মুছলিম খান জীবিকার তাগিদে পুনরায় সৌদিআরবে পাড়ি জমায়। পরিবর্তীতে গত ২০১৯ সালের ১২ মার্চ স্বামী মুছলিম খান দেশে আসে। সম্প্রতি স্ত্রী সনিয়া আক্তার তার স্বামী হাজী মুছলিম খানকে সম্পত্তি লিখে দেওয়ার জন্য প্রচন্ড চাপ সৃষ্টি করে। সম্পত্তি লিখে না দেওয়ার জের ধরে স্ত্রী সনিয়া আক্তার প্রবাসী স্বামীকে ঘুমের ঘরে রেখে স্বামীর জমানো নগদ ১১ লাখ ৩০ হাজার টাকা, ১টি নেকলেছ, হাতের বালা, ১টি গলার চেইন, ১টি হাতের আংটি ও ২ জোড়া কানের দুল সহ ৮ ভরি স্বার্ণালংকার যার মূল্য ৪ লাখ টাকা এবং ব্যবহারের কাপড় নিয়ে পিত্রালয়ে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে স্বামী বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে গত ৬ মে ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম নবী মুরাদ মিয়ার অফিসে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের নিয়ে বিচার শালিসী বৈঠক বসে। বিচার শালিসী বৈঠকে বিচারকরা স্ত্রীকে তার স্বামী বাড়ীতে যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেন। সম্পদ লোভী স্ত্রী সনিয়া আক্তার স্বামী বাড়ীতে না গিয়ে উল্টা নানা ভাবে স্বামীকে হুমকি দিচ্ছে। বর্তমানে স্বামী মুছলিম খান হুমকির কারণে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে বলে জানা গেছে।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও