ফতুল্লায় সন্দেহজনক নারী আটক

ফতুল্লা করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:০২ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৯ রবিবার

ফতুল্লায় সন্দেহজনক নারী আটক

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় সন্দেহজনক নারীকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। ২১ জুলাই রবিবার সকাল ৯টায় ফতুল্লার সেহাচরের নাজমুল গার্মেন্টস এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, সেহাচরের কালাম মিয়ার ভাড়াটিয়া রশিদ মিয়ার ছেলে আক্তারকে (৮) খেলা করার সময় শেফালী (৪০) নামের নারী রুটি দিতে চায়। আক্তার রুটি নিতে অস্বীকার করলে শেফালি বলে রুটি না খেলে আমাকে তিন তলায় পৌঁছে দিয়ে আস। আক্তার বলে এখানে তো কোনো তিন তলা নাই। তখন শেফালি বলে তাহলে মসজিদ পর্যন্ত এগিয়ে দিয়ে আস আমাকে। এ সময় আক্তার চিৎকার দেয় সে সময় চিৎকার শুনে এলাকার স্থানীয় রুবিনা ও রানী নামের ২জন মহিলা ছুটে এসে শেফালিকে ঘিরে ফেলে। কিছুক্ষণ পর এলাকার লোকজন ছুটে এসে শেফালিকে আটক করে মারধর করে করে ফতুল্লা থানায় খবর দেন।

ফতুল্লা থানা থেকে উপ-পুলিশ পরিদর্শক আজিজ এসে ওখানকার একজন মহিলা দিয়ে চেক করায় শেফালিকে।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম হোসেন জানান, রংপুরের কুড়িগ্রামে শেফালির বাড়ি। আমি ওখানকার ওসির সাথে ফোনে যোগাযোগ করে শেফালির বিষয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছি। তবে এখনো শেফালীর বিষয়ে কোনো মামলা করা হয়নি। আমরা তদন্ত করছি যদি শেফালী দোষী হয়ে থাকে, তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনীব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও