সোনারগাঁয়ে শালিসের নামে বসত বাড়ি দখলের অভিযোগ

সোনারগাঁ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:১০ পিএম, ৯ অক্টোবর ২০১৯ বুধবার

সোনারগাঁয়ে শালিসের নামে বসত বাড়ি দখলের অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পৌরসভার লাহাপাড়া এলাকায় শালীশেমর নামে দরিদ্র অসহায় পরিবারের বসতবাড়ি দখলের অভিযোগ উঠেছে বিচারক ও প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। ওই জমি নিয়ে আদালতে একটি মামলা বিচারাধীন থাকার পরও গ্রাম্য মাতাব্বররা আইনের প্রতি কোন প্রকার শ্রদ্ধা না দেখিয়ে তাদের মনগড়া আদেশ দিয়ে ওই দরিদ্র অসহায় পরিবারটিকে বাড়ি ছাড়া করার পায়তারা করছে।

জানা গেছে, উপজেলার সোনারগাঁ পৌরসভার লাহাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল কাদিরের সন্তানেরা পিতার দলিল মূলে ১২ শতাংশ জমির মালিকানা ভোগ দখল করে আসছে। দরিদ্র এই নিরীহ পরিবারের বসত বাড়িটির উপর সম্প্রতি একই গ্রামের একটি সন্ত্রাসী কুচক্রী মহলের দৃষ্টি পড়ে। এই নিয়ে বহুবার বিচার শালিস হয় এবং জমিটি নিয়ে আদালতে একটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। মামলা থাকার পরও এই কুচক্রী মহলের পক্ষে গত ৭ অক্টোবর সোনারগাঁও পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র বিএনপির নেতা নাছিম পাশার নেতৃত্বে পৌরসভা কার্যালয়ে মেয়রের কামরায় বিচার শালিস বসানো হয়। এই শালিসে সন্ত্রাসীদের পক্ষে স্থানীয় আওয়ামীলীগের নামধারীরা জমির অসহায় মালিক নূর ইসলামকে একা পেয়ে আদালতের বিচারাধীন মামলার প্রতি কোন প্রকার শ্রদ্ধা না দেখিয়ে শালিসের নামে সন্ত্রাসীদের পক্ষে এক তরফা রায় দিয়ে জমির প্রকৃত মালিককে তার বৃদ্ধা মা, ছোট ছোট সন্তানসহ বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার পায়তারা করছে। তারা ১০ অক্টোবর বৃহস্পতিবারের মধ্যে বসত বাড়ির দখল সন্ত্রাসীদের বুঝিয়ে দিয়ে রেজিষ্ট্রি দলিল করে লিখে দেওয়ার জন্য সাদা কাগজে জোরপূর্বক বাড়ির মালিক দরিদ্র নুর ইসলামের স্বাক্ষর নেয়।

এব্যাপারে যুবসংঘের সভাপতি মোতালেব মিয়া স্বপন জানান, আমি এই বিষয়ে কিছুই জানি না। ঘটনাক্রমে আমি এবং এমএ জামান একটি জরুরী কাজে ওই সময় পৌরসভায় গিয়েছিলাম।

সোনারগাঁ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার ও প্যানেল মেয়র নাছিম পাশার সাথে বার বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সোনারগাঁ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল হোসাইন বলেন, আদালতে বিচারাধীন জমির উপর বিচার করে জমি বুঝিয়ে দেওয়ার কোন একতিয়ার মাতাব্বরের নেই।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও