বন্দরে মৎস খামারিকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় মামলা নেয়নি পুলিশ

বন্দর করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:২০ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

বন্দরে মৎস খামারিকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় মামলা নেয়নি পুলিশ

ফুল বাগানে অগ্নিসংযোগ ও মৎস খামার থেকে মাছ চুরি ঘটনায় প্রতিবাদ করার জের ধরে মৎস খামার মালিককে কুপিয়ে ডান হাত গুরুত্ব জখম করেছে স্থানীয় সন্ত্রাসী ফয়সাল ও নয়নসহ তাদের সহযোগীরা।

৪ অক্টবর দুপুরে বন্দর কলাববাগস্থ হবু হাজী বাড়ীর সামনে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে আহত মৎস খামার মালিক রানা মিয়া বাদী হয়ে ঘটনার ওই দিন রাতে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। হামলার ঘটনার ৬ দিন পেরিয়ে গেলেও রহস্য জনক কারনে এখন পর্যন্ত মামলা নেয়নি পুলিশ।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, পুরান বন্দর কলাবাগ এলাকার মৃত আদম আলী প্রধানের ছেলে রানা মিয়া একই এলাকায় ফুল বাগান ও মৎস খামার রয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সম্প্রতি সময়ে বন্দর কলাবাগ এলাকার রহম আলী মিয়ার সন্ত্রাসী ছেলে ফয়সাল (২৬) ও হাফেজীবাগ এলাকার টুন্ডা মনির মিয়ার ছেলে নয়নসহ কয়েক জন সন্ত্রাসী রানা ফুল বাগানে অগ্নিসংযোগসহ রাতের আধারে মৎস খামার থেকে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চুরি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় মৎস খামার মালিক রানার প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা ক্ষতি সাধন হয়। এ ব্যাপারে খামার মালিক রানা মিয়া গত ৪ অক্টবর দুপুরে এর প্রতিবাদ করলে উল্লেখিত ২ সন্ত্রাসীসহ অজ্ঞাত নামা ২/৩ জন ক্ষিপ্ত হয়ে রানাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখম করে।

এ ব্যাপারে রানা মিয়া খানপুর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহন করে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মামলায় নেয়নি পুলিশ।

এ বিষয়ে বন্দর থানার ওসি রফিকুল ইসলামের মোবাইলে যোগাযোগ করলে মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও