মাদক দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশের ধাক্কায় বৃদ্ধার মৃত্যুর অভিযোগ

সোনারগাঁ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৩:৪৬ পিএম, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ সোমবার

মাদক দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশের ধাক্কায় বৃদ্ধার মৃত্যুর অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মাদক দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশের ধাক্কায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বৃদ্ধ মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে স্বজনেরা। ২২ ডিসেম্বর রোববার রাতে মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়ী মজলিস গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। তবে পুলিশের দাবি ওই মাদক ব্যবসায়ী সজিবকে ইয়াবা ও গাজাসহ আটক করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার জানায়, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়ি মজলিশ গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে সজিব (২৮) এক সময় মাদকের ব্যবসা করতো। মোগরাপাড়া চৌরাস্তার এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী গিট্টু হৃদয় র‌্যাবের ক্রসফায়ারে নিহত হওয়ার পর সজিব মাদক ব্যবসা ছেড়ে দেয়। রোববার রাত সাড়ে ১০টা দিকে সোনারগাঁ থানার এসআই হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে এসআই মনির হোসেনসহ ৩ জন পুলিশ সজিবের বাড়িতে অভিযান চালায়।

এসময় সজিবকে ইয়াবা দিয়ে পুলিশ আটক করে নিয়ে আসার চেষ্টা করে। পরে তার মা জোসনা বেগম এসআই মনির পায়ে ধরে সজিব মাদকের ব্যবসা ছেড়ে দিয়েছে বলে তাকে ছেড়ে দিতে অনুরোধ করে।

এতে মনির হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে জোসনা বেগমকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দিলে জোসনা বেগম অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

এদিকে সজিবের মা জোসনা বেগম মাটিতে লুটিয়ে পড়লে পুলিশ তাকে ছেড়ে দিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এ ঘটনার খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশের ২০-২৫ জনের টিম মৃত জোসনার পরিবারকে শান্তনা দেয়ার জন্য ঘটনাস্থলে যায়। বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার হুমকি দেয়।

সজিবের বাবা গিয়াসউদ্দিনের বরাত দিয়ে স্বজনেরা জানান, রোববার রাতে পুলিশের সাথে দুইজন সোর্স সজিবের ঘরে ঢুকে তার বালিশের নিচে ইয়াবা ও গাঁজা রেখে গিয়ে পুলিশ নিয়ে ঘরে ঢুকে এরপর পাশের ঘর থেকে সজিবকে আটক করে। বালিশের নিচ থেকে ইয়াবা ও গাঁজা উদ্ধার হয়েছে বলে আমাদের জানান। তবে সজিব আরো ৫ মাস আগে এ ব্যবসা ছেড়ে দিয়েছে।

সোনারগাঁ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান ফাঁসানোর অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মাদক দিয়ে ফাঁসানোর বিষয়টি সত্য নয়। মাদক ব্যবসায়ী সজিবকে ৫০ পিস ইয়াবা ও গাঁজাসহ আটক করা হয়েছে। পরে তার মা এটা দেখে তার রুমে গিয়ে স্টোক করেছে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, মাদক ব্যবসায়ীর মাকে পুলিশ ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে এটা আমার জানা নেই। প্রকৃত ঘটনা তদন্ত করে জানা যাবে।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও