২৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বুধবার ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ , ৭:১৭ অপরাহ্ণ

দরজায় লেখা খাঁটি মধু ২৫০ টাকা : ভেতরে চলতো জামায়াতের গোপন বৈঠক


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || সূত্র : যুগান্তর

প্রকাশিত : ১২:০৮ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৭ শনিবার


দরজায় লেখা খাঁটি মধু ২৫০ টাকা : ভেতরে চলতো জামায়াতের গোপন বৈঠক

নারায়ণগঞ্জ জেলা জামায়াতের সাবেক আমীর ও বর্তমান মহানগর আমীর মাওলানা মাঈনুদ্দিন আহমেদের ঘরের দরজায় লেখা খাঁটি মধু ২৫০ টাকা, আর ভেতরে চলত সরকারবিরোধী দলীয় গোপন বৈঠক। দীর্ঘদিন ধরেই এমন কৌশলে নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন জেলার জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতাদের নিয়ে গোপন বৈঠক করতেন মাঈনুদ্দিন আহমেদ।সূত্র : যুগান্তর

এমন অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার বেলা ১১টায় ফতুল্লার হাজীগঞ্জে মাঈনুদ্দিন আহমেদের ওই বাড়িতে পুলিশ ঝটিকা অভিযান চালায়। এ সময় মাঈনুদ্দিনসহ নারায়ণগঞ্জ মহানগরের শীর্ষ ১৩ নেতাকে আটক করে পুলিশ। এরপর ওই বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে বিপুলসংখ্যক জিহাদি বই, লিফলেট, সদস্য সংগ্রহের ফরম, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের ব্যানার জব্দ করা হয়। দুপুর ২টা পর্যন্ত চলে এ অভিযান।

পরিদর্শক (অপারেশন) মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের ৩টি টিম এ অভিযানে অংশ নেয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলার সাবেক সভাপতি ও বর্তমান মহানগর জামায়াতে ইসলামীর আমীর মাওলানা মাইনুদ্দিন আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আ. কাইয়ুম, জামায়াত নেতা সাইফুদ্দিন মনির, সাহাবুদ্দিন, বশিরুল হক, এসএম নাসির উদ্দিন, সাইদ তালুকদার, জাহাঙ্গীর দেওয়ান, জামাল উদ্দিন, কফিল উদ্দিন, জাকির হোসেন, জাকির হোসেন-২ এবং শহিদ মিয়া।

গ্রেফতারকৃতরা জানান, দলীয় কোনো কার্যক্রম নয় ধর্মীয় বিষয়ের একটি ক্লাস করছিলেন তারা।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিন জানান, মাঈনুদ্দিন আহমেদের বাড়িটি হাজীগঞ্জ বড় মসজিদের পাশের গলির ভেতরে। স্থানীয়রা জানতেন মাঈনুদ্দিন আহমেদ বৃদ্ধ হয়ে গেছেন, তিনি আর রাজনীতি করেন না। বাড়িতে বসে মধু বিক্রি করেন। তার দরজায় কাগজে লেখা রয়েছে খাঁটি মধু ২৫০ টাকায় বিক্রি করা হয়। অনেকেই মধু কিনতে সকাল-বিকাল তার বাড়িতে আসা-যাওয়া করতেন। কিন্তু কারও ধারণা ছিল না তিনি বাড়ির ভেতরেই সরকারবিরোধী রাজনৈতিক কার্যক্রম চালাচ্ছেন।

ওসি জানান, আমাদের কাছে একটি সংবাদ আসে নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলার জামায়াতের শীর্ষ নেতারা নাশকতা চালিয়ে মাঈনুদ্দিন আহমেদের ওই বাড়িতে আশ্রয় নেয়। দলীয় নেতাকর্মীদের আশ্রয় দেয়ার জন্য দোতলা বাড়িটির দোতলায় তিনটি কক্ষ রয়েছে। সেখানে থাকা-খাওয়াসহ সব ধরনের ব্যবস্থা রয়েছে। অভিযানের সময় ওই তিনটি কক্ষের ভেতরে জিহাদি বই, লিফলেট, সদস্য সংগ্রহের ফরম, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের ব্যানারসহ ফটোকপি করার মেশিন, ইন্টারনেটের উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন দুটি সংযোগ ও একাধিক কম্বল পাওয়া গেছে।

ওসি আরও জানান, তিনটি কক্ষ থেকে বাইরে বের হওয়ার জন্য বিভিন্ন স্থান দিয়ে তিনটি পথ রয়েছে। ওই বাড়ির পরিবেশ দেখে ধারণা করা যায়, মাঈনুদ্দিন আহমেদের কাছে জামায়াতে ইসলামীর অনেক শীর্ষ নেতারা আসা-যাওয়া করতেন। এছাড়া ছাত্র শিবির নেতাকর্মীদেরও এখান থেকে নাশকতার প্রশিক্ষণ দেয়া হতো বলে তিনি জানান। আর এ বাড়ি থেকেই নাশকতার পরিকল্পনা করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

জামায়াতের নিন্দা : জামায়াতের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর আমীর মাওলানা মাঈনুদ্দিন আহমেদসহ ১৩ নেতাকে আটক করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর অধ্যাপক মুজিবুর রহমান। শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ