ফের কিং মেকারের কেরামতি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৩০ পিএম, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭ শনিবার



ফের কিং মেকারের কেরামতি

নারায়ণগঞ্জে নানা দিক থেকে বেশ আলোচিত একজন মোহাম্মদ আলী যাঁকে বলা হয় ‘কিং মেকার’। আবার বিএনপির একাংশের নেতাদের কাছে তিনি পরিচিত ‘পীর সাহেব’ হিসেবে। অনেক রাজনীতিককে নেতা বানানো, উত্থানের পেছনে কাজ করা এ ব্যক্তি দেশের গুরুত্বপূর্ণদের একজন। দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী সংগঠন এফবিসিসিআই এর নির্বাচনেও তাঁর ইশারা ছাড়া অনেক হিসেব মিলে না। সেই মোহাম্মদ আলী আবারও নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের এবারের জটিল নির্বাচনে প্রমাণ করলেন তিনি সত্যিই কিং মেকার।

২৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মূলত সভাপতি প্রার্থীকে নিয়েই ছিল মূল আলোচনা। কারণ ক্লাবের বর্তমান সভাপতি ও ভোটে নির্বাচিত সভাপতি প্রার্থী তানভীর আহমেদ টিটু হলেন এমপি শামীম ওসমানের শ্যালক। তাঁর পক্ষে কাজ করেন সেলিম ওসমান ও শামীম ওসমান। তবে এ দুইভাইকে এবার অনেকটাই ব্যাকফুটে রেখে সামনে ও আড়ালে থেকে পুরো কারিশমা দেখান মোহাম্মদ আলী। সরাসির মাঠে নামেন টিটুর পক্ষে। বিনিময়ে জিতেছেন তিনি জিনে

জানা গেছে, মোহাম্মদ আলী এক সময়ে সরাসরি বিএনপির রাজনীতি করতেন। ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে তিনি এমপিও হন। তাঁর হাত ধরে বিএনপির অনেক নেতার উত্থান। তবে বিএনপির রাজনীতি করলেও সব দলেই ছিল তার বেশ কদর। আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি সব দলের লোকজনদের কাছে তিনি আস্থার ভরসা। সে কারণে বিএনপির অনেকের কাছেই তিনি ‘পীর সাহেব’ হিসেবেই পরিচিত। নারায়ণগঞ্জের অনেক নেতার উত্থানে এ ব্যক্তির প্রত্যক্ষ কলকাঠি নাড়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ২০০১ সালের সংসদ নির্বাচনে ভোটের মাত্র ২১ দিন আগে গিয়াসউদ্দিনকে আওয়ামী লীগ থেকে বিএনপিতে জয়েন করিয়ে ব্যাপক আলোচনায় আসেন। তাছাড়া দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী সংগঠন এফবিসিসিআই এর নির্বাচনেও তাঁর ইশারা ছাড়া যে কোন প্যানেলের জয় বেশ দুর্ভেধ্য। এছাড়া ২০১৪ সালে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের উপ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি হতে সেলিম ওসমানকে জেতানোর ক্ষেত্রে তার ভূমিকা ছিল।

ক্লাবের নির্বাচন নিয়ে এখনই শহরের দুটি বলয়ের মর্যাদার লড়াইয়েও রূপ নেয়। একপক্ষ বলেন, ক্লাবের নির্বাচনে টিটুর জয় হলে তা ওসমান পরিবারের প্রতি শহরের এলিট শ্রেণির সমর্থনের প্রকাশ ঘটবে। অন্যদিকে ভোটে ওসমান পরিবারের বিরুদ্ধে সদস্যদের রায়ের আশায় ছিলেন মাহবুবুর রহমান মাসুম।

ক্লাবে ১৪শ সদস্য থাকলেও ভোটার ছিল ১২১১। তার মধ্যে ৯৯৮ জন ভোট প্রদান করেন। তার মধ্যে ভোট বাতিল হয় ১১টি। সভাপতি পদে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন বর্তমান সভাপতি তানভীর আহমেদ টিটু। তিনি পয়েছেন ৬৮৯ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি মাহাবুবুর রহমান মাসুম পেয়েছেন মাত্র ২৯৮ ভোট।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও