২ কার্তিক ১৪২৫, বুধবার ১৭ অক্টোবর ২০১৮ , ২:৩৪ অপরাহ্ণ

UMo

হকার্স মার্কেটের দোকান নিয়ে শামীম ওসমান ও হাফিজের প্রশ্ন


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ১০:৪৫ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০১৮ সোমবার


হকার্স মার্কেটের দোকান নিয়ে শামীম ওসমান ও হাফিজের প্রশ্ন

নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া হকার্স মার্কেটে হকারদের দোকান বরাদ্দ ও এগুলো বিক্রি নিয়ে যেসব প্রশ্ন উঠেছে সেগুলো নিয়ে সেগুলো নিয়ে কথা বলেছেন এমপি শামীম ওসমান ও কমিউনিস্ট পার্টি সভাপতি হাফিজুল ইসলাম।

১৪ জানুয়ারী রোববার বিকেলে এমপি সেলিমকে দেওয়া সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এহতেশামুল হক উল্লেখ করেন, নারায়ণগঞ্জ শহরে হকার্স সমস্যা দীর্ঘদিনের পঞ্জিভূত সমস্যা। তাদের সমস্যা নিরসনে বিষয়টি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন সব সময়ে আন্তরিকতার সাথে বিবেচনা করে আসছে। তারই ধারবাহিকতায় ২০০৮ সালে চাষাঢ়ায় ৫০ শতাংশ জায়গার উপর একটি হকার্স মার্কেট নির্মাণ করে সেখানে ৬৫৮ জন হকারকে দোকান দিয়ে পুনর্বাসন করা হয়। তখন তালিকার বাইরে ফুটপাতে হকার ছিল না। কিন্তু পুনর্বাসিত জায়গায় হকারগণ ব্যবসা পরিচালনা না করে শহর জুড়ে ফুটপাতের সম্পূর্ণ অংশ এবং রাস্তার বেশ কিছু অংশ দখল করে ব্যবসা করছে। ফলে জনসাধারণের ফুটপাত দিয়ে নির্বিঘেœ চলাচল প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সেদিন রাতেই  নিউজ নারায়ণগঞ্জের সংবাদ বিশ্লেষন নিয়ে বিশেষ আয়োজন ‘টক অব দ্যা নারায়ণগঞ্জ’ এর আলোচনায় সিপিবি এবং ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের জেলা সভাপতি হাফিজুল ইসলাম বলেন, হকার্স মার্কেটের দোকান কোন মালিক উচ্চদামে বিক্রয় করে নাই। ৬-৭ লাখ টাকায় বিক্রি করার যে অভিযোগ উঠেছে সে বিষয়ে তদন্ত কমিটি করে তদন্ত করতে হবে। হকাররা একজন আরেক জনের কাছে দিয়ে চলে এসেছে অল্পস্বল্প টাকার বিনিময়ে। হ্যান্ডওভার হয়েছে ২৫-৩০ হাজার টাকায়। অবশ্য সামনের দোকানগুলো লাখ টাকা কোনটা। আপনারা যারা এ বিষয়ে কথা উঠিয়েছেন, তাদের বলবো উচ্চ পর্যায়ে তদন্ত কমিটি করে তদন্ত করতে। যারা এমন বক্তব্য দেয় তারা গরিবদের দাবিয়ে রাখার জন্য এ অভিযোগ করছে বলে তিনি পাল্টা অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, বলার জন্য এ কথা বলা হচ্ছে। হকার্স মার্কেটটি যেভাবে নির্মিত হয়েছে তার ভেতরে ত্রুটি রয়েছে। দোকানদার বসার জায়গা নাই এমন দোকান নির্মান করা হয়েছে মার্কেটটিতে। তাই সেখানে ব্যবসা করে হকাররা লাভবান হয়নি বলে মন্তব্য করেনা তিনি।

এদিকে ১৫ জানুয়ারী সোমবার বিকেলে শহরের চাষাঢ়ায় সলিমুল্লাহ সড়কে হকারদের সমাবেশে হকার্র্স মার্কেটে দোকান বরাদ্দ নিয়ে কারা বিক্রি করেছে সেটাও খুঁজে বের করার আহবান রাখেন শামীম ওসমান। তিনি আরো বলেন, এখানে আপনি বললেন ৬০০ দোকান বিক্রি করে দিয়েছেন হকাররা। কিন্তু যখন ৭ লাখ টাকা করে বিক্রি হলো, আপনি এসব দোকান কাকে বরাদ্ধ দিলেন কিংবা এসব দোকান কারা কিনলো এটা আমরা জানতে চাই। আর ঐ দোকান যদি ৭ লাখ টাকা করে বিক্রি হয় তাহলে সামনের দোকান ৫০ হাজার করে বিক্রি হলো কিভাবে। এই টাকা পেল কারা। কারা এসব দোকান বিক্রি করে টাকা নিলো, আর কোন হকারদেরই বা আপনি এই দোকানগুলো বরাদ্দ দিলেন।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ