১১ ফাল্গুন ১৪২৪, শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ , ৬:৩৪ পূর্বাহ্ণ

primer_vocational_sm

শামীম ওসমানের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় গ্রেপ্তারের কারণ : তৈমূর


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ১০:০২ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ১১:৩৪ পিএম, ২৭ জানুয়ারি ২০১৮ শনিবার


শামীম ওসমানের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় গ্রেপ্তারের কারণ : তৈমূর

নাশকতার দুটি মামলায় গ্রেফতারের পর কারামুক্ত হয়ে গ্রেফতারের পেছনে আওয়ামী লীগের এমপি শামীম ওসমানের সঙ্গে টক শোতে উত্তপ্ত ‘বাকবিনিময়ও’ একটি কারণ দাবী করছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার।

২৫ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে বেরিয়ে এসে গণমাধ্যমকে এসব কথা বলেন তৈমূর আলম খন্দকার। পরে তিনি নেতাকর্মীদেরকেও কৃতজ্ঞতা জানান গ্রেপ্তারের পর সহযোগিতা ও আন্দোলন করার জন্য।

গত ২৩ জানুয়ারী দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালত পাড়ার বাইরে আগামী ৩০ জানুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য আইনজীবী সমিতি নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের প্যানেলের পক্ষে প্রচারণার সময়ে তৈমূরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই সময়ে তাঁকে টেনে হিচড়ে গাড়িতে উঠাতে দেখা যায়।

এর আগের দিন ২২ জানুয়ারী ও ২১ জানুয়ারী পৃথক দুটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলে টক শো অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে ছিলেন তৈমূর আলম খন্দকার যাঁর সঙ্গে ছিলেন আওয়ামী লীগের এমপি শামীম ওসমানও। সেখানে নারায়ণগঞ্জের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক ও হকার ইস্যু ছিল আলোচনার মুখ্য বিষয়।

তৈমূর আলম খন্দকার বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কারাভোগ শেষে মুক্তি পেয়ে বলেন, ‘টক শো অনুষ্ঠানে শামীম ওসমানের সঙ্গে আমার উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়েছিল। টক শোতেই তিনি আমাকে লক্ষ্য করে বলেছিলেন ‘তৈমূর ভাই আপনার নামে কিন্তু ওয়ারেন্ট আছে। পুলিশ ধরছে না।’ এসব কথা বলার পরদিনই আমাকে পুলিশ ধরলো।

‘আগামী ৩০ জানুয়ারী আইনজীবী সমিতির নির্বাচনের আগে আমাকে নাজেহাল করে বিএনপি পন্থী আইনজীবীদের মধ্যে ভয় ঢুকানোর চেষ্টা করা হয়েছে আমাকে গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে’ এও অভিযোগে যুক্ত করেন তৈমূর।

পরিশেষে তিনি মহান আল্লাহর দরবারে শোকরিয়া এবং বিএনপির সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

এদিকে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে মাসদাইরের বাসায় ফিরে তিনি মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে শোকরিয়া নামাজ আদায় শেষে উপস্থিত শত শত নেতাকর্মীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি বিএনপির সর্বস্তরের নেতাকর্মী, আইনজীবী ও নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞ। আমি ধন্যবাদ জানাই আমার প্রিয় সহকর্মী আইনজীবি ও সংবাদকর্মীদের প্রতি।

এসময় তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, গ্রেফতারের পরপরই নেত্রী আমার মুক্তির দাবী জানিয়েছেন ও আমার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে সাহস যুগিয়েছেন।

তৈমূর আরো বলেন, আদালত প্রাঙ্গনে দলমত নির্বিশেষে আইনজীবিরা আমার জন্য যে ভূমিকা নিয়েছেন তা নারায়ণগঞ্জে ইতিহাস হয়ে থাকবে। হামলা মামলা করে জেলে দিয়ে আমাকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন থেকে বিরত রাখা যাবে না। তৃণমূলের হাজার লক্ষ নেতাকর্মীকে সাথে নিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রাম অব্যাহত রাখবো।

তিনি আরো বলেন, আল্লাহ ছাড়া কোন রক্ত চক্ষুকে পরোয়া করি না। রাজপথে ছিলাম, আছি ও আগামী দিনেও রাজপথে থাকবো। আমার জন্ম রাজপথে, মৃত্যুও হবে রাজপথে, ইনশাল্লাহ।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ